আজ : ১১:১৩, ফেব্রুয়ারি ২৫ , ২০২০, ১৩ ফাল্গুন, ১৪২৬
শিরোনাম :

বিপর্যয় এড়াতে ব্রিটেনে আরও বেশি অভিবাসী প্রয়োজন: গবেষণা প্রতিবেদন


আপডেট:০৫:২৪, মে ২২ , ২০১৭
photo

লন্ডনবিডিনিউজ২৪: অর্থনৈতিক বিপর্যয় এড়াতে ব্রিটেনে কম নয়, বরং আরও বেশিসংখ্যক অভিবাসীকে জায়গা দেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছে ব্রিটিশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান গ্লোবাল ফিউচার। কর্মসংস্থান এবং সংশ্লিষ্ট অর্থনৈতিক তথ্য বিশ্লেষণের পর এমন মতামত দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

‘দ্য কেস অব ইমগ্রেশন’ শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদনে গ্লোবাল ফিউচার জানায়, কনজারভেটিভ পার্টির নেতৃত্বাধীন সরকারের লক্ষ্য হলো দ্রুত নীট অভিবাসনের সংখ্যা কমিয়ে তা ২০ হাজার থেকে ১ লাখের মধ্যে সীমিত রাখা। তবে তা অর্থনীতির জন্য সুখকর নয় বলে মনে করছে গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি। ৮ জুনের নির্বাচনকে সামনে রেখে কনজারভেটিভ পার্টির নির্বাচনি ইশতেহার প্রকাশের একদিন পর প্রতিবেদনটি দেওয়া হয়।
গ্লোবাল ফিউচারের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘পূর্ণাঙ্গ কর্মসংস্থানের কাছাকাছি থাকা যুক্তরাজ্যে জনসংখ্যা বার্ধক্যগ্রস্ত এবং এখানে উৎপাদনজনিত প্রবৃদ্ধি কম। আর এসবের কারণে ভবিষ্যতে সফল অর্থনীতির জন্য অভিবাসনের হার বাড়ানো জরুরি হয়ে পড়েছে।’
প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ‘গ্লোবাল ফিউচারের টপ-ডাউন অর্থনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি অনুযায়ী ভবিষ্যতে যুক্তরাজ্যে অর্থনৈতিক বিপর্যয় এড়াতে নীট অভিবাসী গ্রহণের সংখ্যা ২ লাখের বেশি হতে হবে।’
অর্থনীতির বিভিন্ন খাতের ওপর আলাদা বিশ্লেষণের পর গ্লোবাল ফিউচার জানায়, কাঠামোগত ও জনসংখ্যাগত পরিবর্তনের কারণে অনেকগুলো খাতই এরইমধ্যে শ্রমিক স্বল্পতার দ্বারপ্রান্তে রয়েছে। এ বটম-আপ দৃষ্টিভঙ্গি ব্যবহার করে বলা হয়, সব খাতের বিপর্যয় এড়াতে নীট অভিবাসনের সংখ্যা ২ লাখের বেশি হতে হবে।



সাম্প্রতিক খবর

আমার কোন ফেসবুক আইডি নেই - এম কয়সর আহমদ

photo লন্ডনবিডিনিউজ২৪: বাংলাদেশ জাতিয়তাবাদী দল বিএনপি যুক্তরাজ্য শাখার সাধারণ সম্পাদক এম কয়সর আহমদ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন তার নামে সোসাল মিডিয়া ফেইস বুকে বেশ কয়টি আইডি থেকে বিভ্রান্তি মূলক মিথ্যা খবর প্রচার করা হচ্ছে। তিনি নিশ্চিত করেছেন তার নামে কোন ফেসবুক আইডি বা পেইজ নেই। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ নামে বেনামে এরকম ফেসবুক আইডি খুলে আমার নামে অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে তিনি মনে করেন।

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment