আজ : ০৫:৩৪, অগাস্ট ২০ , ২০১৮, ৪ ভাদ্র, ১৪২৫
শিরোনাম :

নাগরিকত্ব নিয়ে দুটি কথা


আপডেট:০৪:৩২, এপ্রিল ২৪ , ২০১৮
photo
রোমান বখত চৌধুরীঃ আমি কোন লিগ্যাল এক্সপার্ট নই। তারপরও একজন সাধারণ মানুষ হিসেবে সাধারণ জ্ঞানে নাগরিকত্ব নিয়ে যা বুঝি তা পেশ করছি। ভুল হলে মন্তব্যে আপনার মতামত রাখেন। সানন্দে গ্রহণ করবো...
পাসপোর্ট হচ্ছে একটি ট্রাভেল ডকুমেন্ট। এটি সাধারণত একজন ব্যক্তি যে দেশে জন্মগ্রহন করেছেন সে দেশ ইস্যু করে। একটি পাসপোর্ট দিয়ে একজন ব্যক্তি কোন দেশের তা চিহ্নিত করা যায়। পাসপোর্ট মূলত আন্তর্জাতিক ভ্রমণে ব্যবহৃত হয়। এতে বাহকের নাম, জন্ম তারিখ, জন্মস্থান, ছবি, স্বাক্ষর ও কিছু চিহ্নিতকরণ নাম্বার থাকে। পাসপোর্ট তৈরিতে নাগরিকত্বের সনদ লাগে। আর নাগরিকত্বের সনদে লাগে জন্ম সনদপত্র। বাংলাদেশে কাজটি করে থাকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রলনালয় তথা ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভা কার্যালয়। তারেক রহমান জন্মসূত্রে বাংলাদেশের নাগরিক। তিনি পৃথিবীর যেদেশেই নাগরিকত্ব নেন না কেন, বাংলাদেশের নাগরিকত্ব তার মুলসুত্র। এটি পৃথিবীর কোন আইন দ্বারা বদলানো সম্ভব নয়। কারণ তারেক রহমান যে বাংলাদেশে জন্মেছেন সেটা তো অন্য দেশে স্থানান্তর করা যাবে না। তাছাড়া তারেক রহমান বাবার কর্মসূত্রে যদি পাকিস্তানেও জন্মগ্রহণ করেন তাহলেও তিনি Jus sanguinis অনুযায়ী জন্মসূত্রে বাংলাদেশের নাগরিক। কারণ তার Bloodline বাংলাদেশের।
এবার তিনি যদি সব নিয়ম কানুন মেনে যুক্তরাজ্যের নাগরিকত্ব গ্রহন করেন, তাহলে তা হবে অর্জন সুত্রে। এটি কোন দেশ তার কিছু নির্দিষ্ট নিয়মের মধ্যে একটা সময়ব্যাপী বসবাস করার পর সাধারণত আবেদন করলে দেয়া হয়। যেমন একজন এসাইলাম সিকারকে ৫ বছর পূর্ণ হলে প্রথমে আইএলআর বা Indefinite Leave to Remain (অনির্দিষ্ট কালব্যাপী সকল নাগরিক সুবিধা সহ বসবাসের অনুমোদন) এবং এর পর এক বছর (সম্ভবত) অতিক্রম করলে 'নেচারালাইজেশন' বা নাগরিকত্বের আবেদন করার উপযুক্ত হবেন। কেউ সাথে সাথেই নেন আবার কেউ দেরি করে নেন। এভাবে ব্রিটিশ নাগরিকত্ব পেলে তা অর্জন সুত্রে অর্জিত হয়। এই অর্জন সুত্রে পাওয়া নাগরিকত্ব আবার নিয়মের বরখেলাফ হলে সংশ্লিষ্ট সরকার কেড়েও নিয়ে যে দেশের সে দেশে deport করতে পারে। তবে Asylum Seeker দের Persecution হতে পারে এই কারণে তা করা হয় না। অর্জন সুত্রে ব্রিটিশ নাগরিকত্বের Ethnicity কলামে বাংলাদেশী থাকতেই হবে তিনি যতদিন বেঁচে থাকেন।
বাংলাদেশের নাগরিকত্ব অনুযায়ী বাংলাদেশের জন্মসূত্রে নাগরিক অন্য দেশের নাগরিকত্ব অর্জন করলে ডুয়াল সিটিজেনশিপের আওতায় বাংলাদেশের নাগরিকত্ব রাখতে পারবেন। বাংলাদেশের একজন সাধারণ মানুষও যুক্তরাজ্যে এই দ্বৈত নাগরিকত্বের সুবিধা রেখে চলেছেন। সেখানে তারেক রহমান যিনি কিনা ভবিষ্যতে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন তিনি এই সুযোগ নষ্ট করবেন? এই শাহরিয়ার আলমেরা মনে করেছেন তারা যা বলবেন তাই সবাইকে বিশ্বাস করতে হবে।
সে যাই হোক, তারেক রহমানের এই পাসপোর্ট বিতর্কের বিষয়ে বাংলাদেশ হাই কমিশন কোন সুস্পষ্ট বক্তব্য দিবে কি না জানিনা। কারণ হোম অফিসের চিঠিটি বাংলাদেশ হাই কমিশন, লন্ডনের বরাবরে লিখা। সুতরাং হাই কমিশনের বাধ্যতামূলকভাবে এই বিতর্কের ব্যাখ্যা দিবেন।
এদিকে শাহরিয়ার আলম কোন আইনের বলে কারো তথ্য এভাবে জনসমক্ষে প্রকাশ করলেন তার ব্যাখ্যা দিবেন কি? এভাবে যদি চলে তাহলে তো হাই কমিশনে রক্ষিত তথ্য মোটেও নিরাপদ নয়। আমার ধারণা, প্রবাসী যুক্তরাজ্যবাসী বাংলাদেশ হাই কমিশনের কাছে এই তথ্য ফাঁসের ব্যাখ্যা তলব করে আইনি নোটিস পাঠাতে পারেন। আবার ব্রিটিশ হোম অফিস বাংলাদেশ হাই কমিশনকে তথ্য সংরক্ষণের ব্যাপারে পারস্পরিক বিধি নিষেধ থাকলে তা ক্ষতিয়ে দেখা উচিৎ। শাহরিয়ার আলম যেভাবে ফেসবুকে ও অনুগত সংবাদ মাধ্যমে হোম অফিসের চিঠি প্রকাশ করেছেন তা যে কোন দেশের তথ্য সংরক্ষণ আইনের বিরোধী। তার কাছে এই তথ্য কোন আদালত বা কেউ চায়নি। তিনি স্বপ্রণোদিত হয়ে প্রকাশ করেছেন তারেক রহমান বা তার দলকে হেয় করার জন্যে। বাংলাদেশ হাই কমিশনে সংরক্ষিত যে কোন তথ্য সরকারী বিষয়। তার ব্যবহার তথ্য সংরক্ষণ আইনের আওতায় হওয়া উচিৎ, কোন মন্ত্রী বা প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছায় নয়।
কোনটা সত্য কোনটা মিথ্যা বুঝা এখনো যাচ্ছে না। তবে বাংলাদেশ হাই কমিশন লন্ডনই এর ব্যাখ্যা দিতে পারবেন। আর যদি না দেন তাহলে, এ নিয়ে তারেক রহমান ব্রিটিশ হোম অফিসকে সাথে বাংলাদেশ হাই কমিশন ও শাহরিয়ার আলমের কাছে আইনি ব্যাখ্যা তলব করতেই পারেন। প্রয়োজনে ক্ষতিপূরণ দাবিও।
লেখকঃ ম্যানেজিং এডিটর, লন্ডনবিডিনিউজ.কম
Posted in মতামত


সাম্প্রতিক খবর

সড়কে প্রাণ গেল নারী-শিশুসহ ৬ জনের

photo ঢাকা প্রতিনিধি: ফেনীর ছাগলনাইয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নারী-শিশুসহ ৬ জন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও চারজন। ফেনী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার শাহাবুদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নিহতদের মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে। আহতদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ছাগলনাইয়ায় উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মুহুরীগঞ্জে সুলতানা ফিলিং স্টেশনের

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment