আজ : ০৩:৫৩, ফেব্রুয়ারি ১৭ , ২০১৯, ৫ ফাল্গুন, ১৪২৫
শিরোনাম :

সিলেট নগর উন্নয়নে কোটি টাকার জমি ছাড়লেন হুমায়ুন রশিদের পরিবার


আপডেট:০৩:১০, ফেব্রুয়ারি ১০ , ২০১৯
photo

সিলেট প্রতিবেদক: সিলেটের দরগাহ গেট থেকে আম্বারখানা সড়ক প্রশস্তকরণে উদ্যোগ নিয়েছে সিলেট সিটি করপোরেশন। সেই সড়কের পাশেই অবস্থিত রশিদ মঞ্জিল তথা সাবেক স্পিকার মরহুম হুমায়ুন রশিদ চৌধুরীর বাসভবন।গুরুত্বপূর্ণ এলাকা হিসেবে এই এলাকার একফুট জমির দাম অনেক। আর সেই জমি নগর উন্নয়নে জনস্বার্থে দান করলো সাবেক স্পিকার হুমায়ুন রশীদ চৌধুরীর পরিবার।


স্বেচ্ছায় ছেড়ে দেওয়া মোট ১১০ ফুট জমি রোববার (১০ ফেব্রুয়ারি) রশিদ পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে বুঝে নেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। এদিন সাবেক স্পিকারের ছোট ভাই ইমরান রশীদ চৌধুরীকে আনুষ্ঠানিকভাবে বাসার সীমানাপ্রাচীর ভাঙার কাজের উদ্বোধন করে জমিটুকু রাস্তায় অন্তর্ভুক্ত করেন মেয়র।

মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, নগরের প্রাণকেন্দ্র দরগাহ গেটের রশিদ মঞ্জিলে গিয়ে প্রয়াত স্পিকার হুমায়ুন রশীদ চৌধুরীর ছোটভাই ইমরান রশীদ চৌধুরীর কাছে জনস্বার্থে রাস্তার জন্য জমি ছাড়ার প্রস্তাব দেই। জনসাধারণের কথা চিন্তা করে বাড়ির সম্মুখভাগের ৫ ফুট করে ১১০ ফুট জমি ছেড়ে দেন তিনি।

হুমায়ুন রশীদ চৌধুরীর পরিবারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে মেয়র বলেন, জনস্বার্থে মূল্যবান জমি ছেড়ে দিয়ে অর্থমন্ত্রীর পরিবারের মতো দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন স্পিকারের পরিবার। তিনি বলেন, নগরীর সর্বত্র উন্নয়ন কাজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে। নগরবাসীর সহযোগিতায় অচিরেই তিলোত্তমা নগরী হবে সিলেট।

এসময় সিসিকের ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ তৌফিকুল হাদী, প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমান, সিসিকের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. তানভীর আহমদ তানিমসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

Posted in সিলেট


সাম্প্রতিক খবর

আবুধাবি প্রতিরক্ষা প্রদর্শনীতে অংশ নিলেন প্রধানমন্ত্রী

photo আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবু ধাবিতে আন্তজার্তিক প্রতিরক্ষা প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছেন সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও দেশটির প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম এর আমন্ত্রণে পাঁচদিন ব্যাপী এ প্রতিরক্ষা প্রদর্শনীতে অংশ নেন তিনি। রোববার (১৭ ফেব্রুয়ারি) মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে অংশগ্রহণ শেষে জার্মানি থেকে

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment