আজ : ০৫:৩০, অগাস্ট ২০ , ২০১৮, ৪ ভাদ্র, ১৪২৫
শিরোনাম :

আদালতে কাঁদলেন অভিনেত্রী কাজী নওশাবা, আবারও রিমান্ডে


আপডেট:০৩:৪১, অগাস্ট ১০ , ২০১৮
photo

ঢাকা সংবাদদাতা: ফেসবুকে গুজব ছড়িয়ে সহিংসতা উস্কে দেয়ার অভিযোগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনের মামলায় গ্রেপ্তার অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।শুক্রবার ঢাকা মহানগর হাকিম আমিরুল হায়দার চৌধুরী রিমান্ডের আদেশ দেন।

চার দিনের রিমান্ড শেষে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের ইন্সপেক্টর ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম শুক্রবার নওশাবাকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। অপরদিকে নওশাবার আইনজীবীরা তার জামিনের আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক ওই রায় দেন।

গত ৪ আগস্ট রাতে উত্তরা থেকে নওশাবাকে আটক করেছিল র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) একটি দল। আজ রিমান্ড শুনানিকালে অঝোরে কাঁদতে দেখা গেছে নওশাবাকে। মাঝে-মধ্যে মাকে জড়িয়ে ধরেও কান্নায় ভেঙে পড়েন নওশাবা।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, আসামি তার নিজের মোবাইল ফোন থেকে নিজ নামীয় ফেসবুক আইডিতে গত ৪ আগস্ট বেলা ৪টার দিকে উত্তরার ১৩নং সেক্টরের ৪নং রোডের ২নং বাড়ি থেকে অত্যন্ত আবেদনময়ী কন্ঠে লাইভ ভিডিও সম্প্রচার করে বলেন, জিগাতলায় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে এক জনের চোখ উঠায়া ফেলছে আর ৪ জনকে মেরে ফেলছে। ছাত্রলীগের ছেলেরা সেটা করেছে। প্লিজ ওদের বাঁচান, প্লিজ। তারা জিগাতলায় আছে। আপনারা যে যেখানে আছেন কিছু একটা করেন।

তার এই আহ্বান মুহূর্তের মধ্যে দেশি বিদেশি সামাজিক ও ইলেকট্রনিক্স মাধ্যমে ভাইরাল হয় যা জনমনে আতঙ্ক ও বিদ্বেষ ছড়িয়ে দেয়। বিভিন্ন গণমাধ্যমের কর্মীরা তার এই প্রপাগান্ডার উৎস জানার জন্য ফোন করলে তিনি তার স্বপক্ষে সঠিক কোনো ব্যাখ্যা দিতে পারেন নাই। প্রকৃতপক্ষে ওই সময় জিগাতলায় ওই ধরনের কোন ঘটনা ঘটে নাই। তিনি পূর্ব পরিকল্পিতভাবে রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য এবং জনসাধারণের অনুভূতিতে আঘাত করার জন্য এইরূপ মিথ্যা ও মানহানিকর বক্তব্য প্রকাশ করেছেন।নওশাবার পক্ষে তার আইনজীবী কাউসার আহম্মেদ, শ্যামল কান্তি সরকার ও প্রমুখ আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিলপূর্বক জামিনের আবেদন করেন।

শুনাতি তারা বলেন, আসামিকে যেভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে তাতে মনে হচ্ছে তিনি একজন দাগি আসামি। তিনি ১০ বছর আগে থেকে শিশুদের নিজের কাছে এনে লালন-পালন করছেন। তিনি যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে রাজপথে আন্দোলন করেছেন। রাজাকার মুক্ত বাংলাদেশ গড়তে মানববন্ধন করেছেন। তিনি ১০ বছর যাবৎ সমাজসেবা মূলক কর্মকা- চালিয়ে যাচ্ছেন। তার ৬ বছরের একটি বাচ্চাও আছে। সব কিছু মিলিয়ে শিশুদের জন্য তার একটা সফট কর্নার রয়েছে।

আইনজীবীরা বলেন, সেদিন একটি ছেলের আবেদনে ইমোশনাল হয়ে আসামি ফেসবুক লাইভে এসেছিলেন। আসামি বর্তমানে অসুস্থ, ভারতে গিয়ে চিকিৎসা করিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে ক্রিমিনাল রেকর্ড নেই। জামিন দিলে তিনি পলাতক হবেন না। আর জামিন না দিলে রিমান্ড নামঞ্জুর করে তাকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিতে পারেন।আদালত উভয় পক্ষের শুনানি শেষে কাজী নওশাবাকে দুই দিনের রিমান্ড দেন।



সাম্প্রতিক খবর

সড়কে প্রাণ গেল নারী-শিশুসহ ৬ জনের

photo ঢাকা প্রতিনিধি: ফেনীর ছাগলনাইয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নারী-শিশুসহ ৬ জন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও চারজন। ফেনী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার শাহাবুদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নিহতদের মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে। আহতদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ছাগলনাইয়ায় উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মুহুরীগঞ্জে সুলতানা ফিলিং স্টেশনের

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment