আজ : ১১:২১, জুলাই ৫ , ২০২০, ২১ আষাঢ়, ১৪২৭
শিরোনাম :

মালয়েশিয়ায় পাচারকালে কক্সবাজারে ২৮ রোহিঙ্গা আটক


আপডেট:০৬:৩০, মে ১৫ , ২০১৯
photo

ঢাকা প্রতিবেদক: সাগরপথে মালয়েশিয়ায় পাচারকালে কক্সবাজার শহরতলীর শুকনাছড়ি ও দরিয়ানগর ঘাট থেকে নারী ও শিশুসহ ২৮ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৪ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে তাদের আটক করা হয়। আটকদের মধ্যে ১৩ জন নারী, ৯ জন পুরুষ ও ৬ শিশু রয়েছে। এসময় পাচারে ব্যবহৃত একটি নৌকাও জব্দ করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাতে মালয়েশিয়ায় মানবপাচারকারী একটি চক্র দরিয়ানগর ও শুকনাছড়ি ঘাটে অর্ধ-শতাধিক নারী-পুরুষ ও শিশুকে জড়ো করে। বিষয়টি টের পেয়ে এলাকার শতাধিক মানুষ রাত সাড়ে ৯টার দিকে সমুদ্র সৈকতে পাচারকারীদের একটি বাড়ি ঘেরাও করে ২৮ জনকে আটকে রাখে। পরে খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১০টার দিকে সদর থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

স্থানীয় যুবক ইমাম হোসেন জানান, মালয়েশিয়ায় মানবপাচারকারী একটি চক্রের সদস্যরা দরিয়ানগর ও শুকনাছড়ি ঘাটকে আবারও রুট হিসেবে ব্যবহারের খবর পেয়ে মঙ্গলবার রাতে এলাকাবাসী জড়ো হয়ে একটি বাড়িতে ২৪ জন ও সমুদ্র সৈকতে চারজনকে আটকে রাখে। এসময় অন্ধকারে আরও কয়েকজন মালয়েশিয়াগামী ও মানবপাচারকারী সটকে পড়ে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরিদউদ্দিন খন্দকার বলেন, একদল রোহিঙ্গাকে জড়ো করে সমুদ্রপথে মালয়েশিয়া পাচার করার প্রস্তুতি নিচ্ছিল কয়েকজন দালাল। পাচারের উদ্দেশ্যে জড়ো হওয়া ২৩ জন রোহিঙ্গাকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় উদ্ধার করা হয়। তাদের বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। পাচারে জড়িত স্থানীয় দালালরা পালিয়ে গেলেও তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সাম্প্রতিক খবর

টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র ও উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কেয়ারার্স এসোসিয়েশনের ভার্চুয়াল মিটিং অনুষ্ঠিত

photo লন্ডনবিডিনিউজ২৪ঃটাওয়ার হ্যামলেটস কেয়ারার্স এসোসিয়েশন গত ২রা জুলাই বৃহস্পতিবার কেয়ারারদের বিভিন্ন দাবি ও সমস্যা নিয়ে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের নির্বাহী মেয়র জন বিগস ও সংস্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে বিকেল ৬ টা থেকে ঘন্টা ব্যাপি এক ভার্চুয়াল মিটিং অনুষ্ঠিত হয় । টাওয়ার হ্যামলেটস কেয়ারার্স এসোসিয়েশনের আহ্বানে সাড়া দিয়ে মেয়র জন বিগস এই ভার্চুয়াল সভার

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment