আজ : ১২:৫৬, জুন ২০ , ২০১৯, ৫ আষাঢ়, ১৪২৬
শিরোনাম :

ছেলের বিয়েতে মা নিষিদ্ধ!


আপডেট:০৫:২২, মার্চ ৩০ , ২০১৯
photo

বিনোদন ডেস্ক: হলিউডের সাবেক তারকা দম্পতি টম ক্রুজ ও নিকোল কিডম্যানের ছেলে কনোরের বিয়ে হবে ইতালিতে। এখন চলছে জোর প্রস্তুতি। কিন্তু এই আয়োজনে নিকোলকে নিষিদ্ধ করে হৈচৈ ফেলে দিয়েছেন টম।

আমেরিকান বিনোদন ও গসিপ ওয়েবসাইট রাডার অনলাইন জানিয়েছে, সায়েন্টোলজি ধর্মের রীতি অনুযায়ী কনোরের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হবে। কিন্তু নিকোলের মধ্যে অন্যকে দমিয়ে দেওয়ার প্রবণতা আছে বলে মনে করে সায়েন্টোলজি ধর্মের চার্চ। এ কারণেই ছেলের বিয়েতে তার আসার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেন টম। তাছাড়া তাকে কখনও নেমন্তন্ন করার কথা ভাবেননি তিনি। আদতে সাবেক স্ত্রীকে সন্তানের বিয়ের অনুষ্ঠানে দেখতে চান না ৫৬ বছর বয়সী এই অভিনেতা।

একটি সূত্র জানিয়েছে, কনোরকে ফোন করে নিকোলকে নিষিদ্ধ করার কথা জানান ‘মিশন: ইমপসিবল’ তারকা। ছেলেও বাবার কথা মেনে নিয়েছে। টমের প্রতি তার অগাধ শ্রদ্ধা। বাবার কোনও কিছু কখনও অমান্য করেননি তিনি।কনোরও একজন সায়েন্টোলজিস্ট। তার পেশা ডিজে। ২০১৪ সালের নারী দিবসে তিনি বলেছিলেন, ‘মাকে আমি ভালোবাসি।’

সায়েন্টোলজি চার্চের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, ‘নিকোল কিডম্যানের মতো মানুষেরা আশেপাশের লোকদের দমিয়ে রাখার চেষ্টা করেন। মানবিকতাকে আরও শক্তিশালী করা ও বুদ্ধিমত্তা বৃদ্ধিতে এ ধরনের ব্যক্তিরা প্রতিকূল।’১৯৯০ সালে বিয়ে করেন টম ক্রুজ ও নিকোল কিডম্যান। এর পাঁচ বছর পর কনোরকে দত্তক নেন তারা। ২০০১ সালে তাদের বিয়েবিচ্ছেদ হয়। এরপর দুই দত্তক সন্তান কনোর ও ইসাবেলার দায়িত্ব নিজের কাছে রাখেন টম।

জানা গেছে, টম ক্রুজের তৃতীয় স্ত্রী কেটি হোমস ও তাদের মেয়ে সুরিকেও দমিয়ে রাখা মানুষ হিসেবে ঘোষণা করেছে সায়েন্টোলজি চার্চ। সুরি থাকে মায়ের কাছেই।

দত্তক সন্তানের সায়েন্টোলজি ধর্ম বেছে নেওয়াকে সমর্থন দিয়েছেন নিকোল কিডম্যান। অস্ট্রেলিয়ার হু ম্যাগাজিনকে ৫১ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী বলেন, ‘তারা প্রাপ্তবয়স্ক। নিজেদের সিদ্ধান্ত নিজেরাই নিতে পারে। মা হিসেবে আমার দায়িত্ব ভালোবাসা দেওয়া। আমি সহনশীলতার উদাহরণ রেখেছি। সন্তান যাই করুক তাদের জন্য আমি সবসময় ভালোবাসার দুয়ার খুলে রাখি।’

২০০৬ সালে সংগীতশিল্পী কিথ আরবানকে বিয়ে করেন নিকোল কিডম্যান। তাদের সংসারে আছে দুই সন্তান সানডে (১০) ও ফেইথ (৭)।



সাম্প্রতিক খবর

জাঁকজমক অনুষ্টানে সম্পন্ন হল

photo লন্ডনবিডিনিউজ২৪ঃ বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে বৃটেনের শীর্ষ ব্যাবসায়ী, পেশাজীবী,বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধি ও কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের সরব উপস্থিতিতে গত ১৮ জুন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক জাঁকজমক ভাবে অনুষ্টিত হল সংগঠনের ঈদ প্রীতি সমাবেশ। এসেক্সের ‘ওয়েলথাম অ্যাবি’র ঐতিহ্যবাহী ম্যারিয়েট হোটেলের হল রুমটি প্রবাসী সিলেটবাসীর মিলনমেলায় পরিনত হয়েছিলো । বিশিষ্ট কমিউনিটি

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment