আজ : ১০:২১, অগাস্ট ২৪ , ২০১৯, ৯ ভাদ্র, ১৪২৬
শিরোনাম :

‘আর্মিওয়ার্ম’ নিয়ে ভয়ের যথেষ্ট কারণ আছে


আপডেট:০৯:০৪, ফেব্রুয়ারি ২ , ২০১৯
photo

ড. খন্দকার শরিফুল ইসলাম: ফসলের চরম শত্রু হিসেবে দেশে-বিদেশে পরিচিত ‘ফল আর্মিওয়ার্ম’ কমপক্ষে ৮০টি ফসলের ক্ষতি করতে পারে। তবে একটি দুটি ফসলের ওপর নির্ভর করে বসে থাকে না তারা। এক ফসল না থাকলে অন্য ফসলে যায়। তবে ভুট্টা তাদের প্রধান টার্গেট। তবে পাশাপাশি ধান, গম, তেলজাতীয় ফসল, শাক-সবজিসহ আরও অনেক ফসলের ক্ষেত আক্রমণ করে তারা।

যেহেতু এ পোকাটি আমাদের দেশে ঢুকে গেছে, একে একেবারে তাড়ানোর কোনো সুযোগ নেই। এখন আমরা যেটা করতে পারি, শত্রুকে দমিয়ে রাখতে পারি। একে মোকাবেলা করতে আমাদের যতটা সম্ভব ব্যবস্থা নিতে হবে। শত্রু দমনে আমাদের সব সময় প্রস্তুত থাকতে হবে যাতে সে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে না পারে।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) রেকর্ড অনুযায়ী ২০১৮ এর অক্টোবরে দেশে ফল আর্মিওয়ার্মের সন্ধান পাওয়া যায়। পাশর্^বর্তী দেশ ভারতে এর আগের বছর পোকাটির সন্ধান মেলে। তখন থেকেই আমাদের মধ্যে আশঙ্কা কাজ করছিল যে, বাংলাদেশেও এটি এসে থাকতে পারে। যেহেতু পোকাটি দ্রুত ছড়াতে পারে সেজন্য এ বিষয়ে সার্ভের উদ্যোগ নেওয়া হয়। সার্ভের পরে সেই আশঙ্কাই সত্য হলো। ভারতে আসার এক বছরের মাথাতেই দেশে মিলল ‘ফল আর্মিওয়ার্ম’।

এর বিভিন্ন দিক নিয়ে ইতোমধ্যে গবেষণা শুরু হয়েছে। আমার তত্ত্বাবধানে গবেষণা চলছে, আরও হবে। প্রথম পর্যায়ে বাংলাদেশে আসা বিশেষ পোকাটি আসলেই ‘আর্মিওয়ার্ম’ কি না-গবেষণায় সে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে। এ পোকার বংশ বিস্তার এবং এর ধরন, আমাদের দেশের আবহাওয়ার উপযোগিতা, কী পরিমাণ ক্ষতি করতে পারে ইত্যাদি নানা বিষয়ে গবেষণা চলছে। চুয়াডাঙ্গা, গাইবান্ধা ও ময়মনসিংহে বর্তমানে এ পোকা নিয়ে মাঠ পর্যায়ে গবেষণা চলছে।

‘পাশাপাশি ফসলের ক্ষতিকারক এ পোকাটির দমন ব্যবস্থার বিষয়েও আমরা কাজ করছি। এসব পদক্ষেপ থেকে প্রাথমিকভাবে কিছু ফল আমরা পেয়েছি।’

‘ফল আর্মিওয়ার্ম’ দেশের নতুন একটি সমস্যা। ক্ষতিকারক এ পোকার বড় ধরনের ক্ষতি করার যথেষ্ট ক্ষমতা রয়েছে। দুর্ভিক্ষ সৃষ্টি করার ক্ষমতাও তার মধ্যে আছে। হঠাৎ করেই যেকোনো বড় ধরনের দুর্যোগ সৃষ্টি করতে পারে ‘আর্মিওয়ার্ম’। এটাই এখন আমাদের সবচেয়ে বড় ভয়ের বিষয়। কারণ সে ধরনের দুর্যোগ মোকাবেলা করার মতো যথেষ্ট সক্ষমতা আমাদের নেই। এ রকম পরিস্থিতি আসলে তার বিপরীতে অনেক বড় পরিসরে কাজ করতে হয়। এক দিনে এ রকম সমস্যা মোকাবেলা করা সম্ভব নয়। কাজ করতে হবে ধাপে ধাপে।

‘সঙ্গত কারণে এর জন্য আরও বড় আকারের গবেষণাও দরকার। আমরা শুরু করেছি। তবে এটা আরও বড় আকারের করা দরকার।’
যেহেতু এটি একটি নতুন সমস্যা তাই সরকারের পাশাপাশি সবাইকে এ বিষয়ে এগিয়ে আসতে হবে। যদিও সরকার এ বিষয়ে তৎপর রয়েছে। তবে সবাইকেই সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে বিষয়টি মোকাবেলায় জোর প্রয়াস চালাতে হবে।

লেখক: অধ্যাপক, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

Posted in মতামত


সাম্প্রতিক খবর

সিলেটের প্রবীণ কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব ও সমাজসেবি গোলাম রব্বানি চৌধুরীর ইন্তেকাল

photo লন্ডনবিডিনিউজঃ সিলেটের খুরুমখলা নিবাসি প্রবীণ কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব ও বিশিষ্ট সমাজসেবি গোলাম রব্বানি গত ১৭ আগস্ট ইন্তেকাল করেন। গোলাম রব্বানী চৌধুরী (আমুদ মিয়া), তার এলাকায় একজন সুপরিচিত ব্যাক্তি ছিলেন। তিনি সামাজিক, রাজনৈতিক বিভিন্ন সংগঠনের সাথে সস্পৃক্ত ছিলেন। তিনি মানুষের সুখে,দুখে আজীবন পাশে থাকতেন এবং মানুষকে বিভিন্ন ভাবে সাহায্যে, সহযোগিতা করতেন। তার মৃত্যুর সংবাদ

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment