আজ : ০১:৫৮, অগাস্ট ২১ , ২০১৮, ৫ ভাদ্র, ১৪২৫
শিরোনাম :

গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া


আপডেট:০৩:২২, ফেব্রুয়ারি ১৪ , ২০১৮
photo

ঢাকা প্রতিনিধি:: দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে পেয়েছেন গৃহকর্মী ফাতেমাকে।আদালতের আদেশক্রমে বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) থেকে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি খালেদা জিয়ার সঙ্গে থাকতে দেওয়া হয়েছে তাকে।

সন্ধ্যায় কারাগারের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, আদালতের নির্দেশনা মতো ফাতেমাকে থাকতে দেওয়া হয়েছে খালেদার সঙ্গে। বিএনপি প্রধানও ভালো আছেন কারাগারে। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয় খালেদা জিয়ার ছেলে ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ অন্য পাঁচ আসামিকে।

রায় ঘোষণার পরই সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নেওয়া হয়। তখন খালেদা জিয়ার সঙ্গে গাড়িতে তার দীর্ঘদিনের গৃহকর্মী ফাতেমাকে দেখা গেলেও বিএনপির পক্ষ থেকে অভিযোগ তোলা হয়, তাকে থাকতে দেওয়া হচ্ছে না সাবেক প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে। একইসঙ্গে দলটি অভিযোগ করে, সাবেক প্রধানমন্ত্রী হলেও খালেদা জিয়াকে কারাগারে ডিভিশন (সামাজিক মর্যাদা অনুযায়ী প্রাপ্য সুযোগ-সুবিধা) দেওয়া হচ্ছে না।

এরপর খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা এ বিষয়ে আদালতে আবেদন করলে বিচারক কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা দেন খালেদা জিয়াকে ডিভিশন দেওয়ার জন্য। একইসঙ্গে ফাতেমাকে সঙ্গে রাখার আবেদনও আদালত মঞ্জুর করেন বলে জানান তার আইনজীবীরা।তারপর বিএনপি প্রধানকে ডিভিশন দেওয়া হয়। ছয় দিনের মাথায় সঙ্গী হিসেবে গৃহকর্মী ফাতেমাকেও পেলেন খালেদা জিয়া।



সাম্প্রতিক খবর

অনুমতি ছাড়া ফৌজদারি মামলায় সরকারি চাকুরেদের গ্রেপ্তার নয়

photo ঢাকা সংবাদদাতা: অভিযোগপত্র গ্রহণের আগে ফৌজদারি মামলায় সরকারি কর্মচারীকে গ্রেপ্তারে সরকারের অনুমতি নেয়ার বাধ্যবাধকতা আরোপ হচ্ছে।সোমবার ঈদের আগে মন্ত্রিসভার শেষ বৈঠকে অনুমোদন হওয়া ‘সরকারি চাকরি আইন ২০১৮’ এর চূড়ান্ত খসড়ায় এমন বিধান রাখা হয়েছে। তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম এই তথ্য জানান। বলেন, ‘আগে গ্রেপ্তার

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment