আজ : ০৩:৫০, অক্টোবর ২৩ , ২০১৮, ৭ কার্তিক, ১৪২৫
শিরোনাম :

কানাডার সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ স্থগিত সৌদি আরবের, রাষ্ট্রদূত বহিষ্কার


আপডেট:০৬:০৯, অগাস্ট ৬ , ২০১৮
photo

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ‘অভ্যন্তরীণ’ বিষয়ে হস্তক্ষেপের কারণে কানাডার সঙ্গে সব ধরনের নতুন বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সহযোগিতা স্থগিত করেছে সৌদি আরব। একই সঙ্গে সৌদি আরবে নিযুক্ত কানাডার রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার ও কানাডার নিযুক্ত সৌদি দূতদের দেশে ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে এই বিষয়ে কানাডা প্রকাশ্যে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এখবর জানিয়েছে।

সোমবার সামাজিক মাধ্যম টুইটারে ধারাবাহিক পোস্টে সৌদি আরবের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তারা কানাডার দূতকে বহিষ্কার করে কানাডায় নিযুক্ত নিজেদের দূতকে ফিরিয়ে আনছে তারা।

সৌদি আরবে বেশ কয়েকজন নারী অধিকারকর্মীকে আটকের ঘটনায় ‘গভীর উদ্বেগ’ প্রকাশ করে বিবৃতি দেওয়ার পর এই পদক্ষেপ নিল মধ্যপ্রাচ্যের রাজতন্ত্রের দেশটি। আটক হওয়া এসব অধিকারকর্মীদের মধ্যে রয়েছেন সৌদি-আমেরিকান নারী অধিকারকর্মী সামার বাদাউয়ি। কানাডার নাগরিকত্বও রয়েছে তার। তিনি সৌদি আরবের পুরুষ অভিভাবকত্ব আইন বাতিলের দাবি করে আসছেন। সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের নেওয়া সংস্কার পরিকল্পনার সঙ্গে তৈরি হওয়া ইতিবাচক চরিত্রের বিপরীতে তাকে গ্রেফতার করা হলে মুক্তি দাবি করে বিবৃতি দেয় কানাডা। এরপরই কূটনীতিক বহিষ্কারের কথা জানায় সৌদি আরব।

কানাডার দূতকে বহিষ্কার করে তাকে দেশ ছেড়ে যাওয়ার জন্য ২৪ ঘণ্টা সময় দেওয়া হয়েছে। সৌদি আরবের এই ঘোষণার পর কানাডিয়ান ডলারের মূল্য স্যৌদি আরবে দশমিক ২ শতাংশ কমে গেছে। ২০১৭ সালে সৌদি আরব ও কানাডার সঙ্গে ৩২৩ কোটি ডলারের বাণিজ্য হয়েছিল বলে জানিয়েছে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি। এরমধ্যে কেবল সৌদি আরবই উত্তর আমেরিকান দেশটিতে ২১৪ কোটি ডলারের পণ্য রফতানি করে। দেশটির মোট রফতানি আয়ের এক শতাংশ রফতানি হয় কানাডায়।

সামার বাদাউয়ির আরেক ভাই ব্লগার রাইফ বাদাউয়ি। সৌদি সরকারের সমালোচনা করায় তাকেও কারাগারে আটক রাখা হয়েছে। এসব আটকের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে শুক্রবার দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়, ‘সৌদি কর্তৃপক্ষকে তাদের সবাইকে মুক্তি দেওয়ার আহ্বান জানাই’। কানাডার এই বিবৃতিতে তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানায় সৌদি আরব। সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের টুইটে বলা হয় ‘তাৎক্ষণিকভাবে মুক্তি’ শব্দগুচ্ছ ব্যবহার করে দেওয়া কানাডার বিবৃতি দুই দেশের সম্পর্কের ক্ষেত্রে খুবই দুর্ভাগ্যজনক, নিন্দনীয় ও অগ্রহণযোগ্য।

সামার বাদাউয়িকে গ্রেফতারের দিন নাসিমা আল-সাদাহ নামের আরেক নারী অধিকারকর্মীকে গ্রেফতার করেছে। আন্দোলনকর্মী, শিক্ষাবিদ ও সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে চলমান গ্রেফতার অভিযানের অংশ হিসেবে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)।

২০১৮ সালের মে মাস হতে এ পর্যন্ত বেশ কয়েকজন নারী অধিকারকর্মীকে গ্রেফতার করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। এদের মধ্যে বেশিরভাগই নারী গাড়ি চালানোর অনুমতি ও পুরুষ অভিভাবকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রচারণায় যুক্ত ছিলেন। মে মাসে কর্তৃপক্ষ নারী অধিকারকর্মী এমান আল-নাফজান, লুজাইন আল-হাতলুল, আজিজা আল-ইউসেফ, আয়শা আল-মানিয়ে, ইব্রাহিম মোদেইমাহ ও মোহাম্মদ আল-রাবেয়াকে গ্রেফতার করে। কর্তৃপক্ষ জানায়, বিদেশি শক্তির সঙ্গে যোগসাজশ ও বিদেশি শত্রুদের আর্থিক সহযোগিতা দেওয়ার মতো সন্দেহজনক কর্মকাণ্ডের জন্য সাতজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তদন্ত চলাকালে আরও গ্রেফতার করা হতে পারে।



সাম্প্রতিক খবর

ব্রেক্সিট চুক্তির ৯৫ শতাংশই প্রস্তুত: থেরেসা মে

photo আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে মনে করেন, ব্রেক্সিট বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজনীয় চুক্তির ৯৫ শতাংশ শর্তই চূড়ান্ত করা গেছে। আর চুক্তির চূড়ান্ত হওয়া না হওয়াটা তার নিজের ভবিষ্যৎ নয় বরং যুক্তরাজ্যের ভবিষ্যতের সঙ্গে জড়িত। এসব কথা তিনি সোমবার হাউজ অব কমন্সে দেওয়া ভাষণে উল্লেখ করবেন। হাউজ অব কমন্সের জন্য নির্ধারিত ভাষণের বক্তব্য আগাম প্রকাশের বিষয়টিকে ‘বিরল’

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment