আজ : ০১:২০, অক্টোবর ১৬ , ২০১৮, ৩০ আশ্বিন, ১৪২৫
শিরোনাম :

আওয়ামী লীগের দুই উদ্বেগ প্রশ্নফাঁস ও মাদক: কাদের


আপডেট:১০:৪২, ফেব্রুয়ারি ১৪ , ২০১৮
photo

ঢাকা প্রতিনিধি: প্রশ্ন ফাঁস ও মাদক নিয়ে সরকার উদ্বিগ্ন বলে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এসবের সঙ্গে সম্পৃক্তদের শাস্তির আওতায় আনার চেষ্টা থেমে নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বুধবার ধামরাইয়ের বালি এলাকায় ধাররাই আওয়ামী লীগের এক সমাবেশে এসব কথা বলেন কাদের। বংশী নদীর ওপর একটি সেতু উদ্বোধনের জন্য সেখানে গিয়েছিলেন তিনি।

কাদের বলেন, ‘আমাদের এখন দুটি উদ্বেগের বিষয়। একটি হলো, একশ্রেণির দুর্বৃত্ত প্রশ্ন ফাঁস করে চলেছে। আরেকটি হচ্ছে গ্রামে গ্রামে মাদক ছড়িয়ে যাওয়া। এরা দেশ ও জাতির শত্রু। এদের দ্রুত বিচার আদালতে বিচার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।’

নির্বাচন আর বেশি দূরে নয় জানিয়ে নেতা-কর্মীদেরকে দলকে সংগঠিত করার কাজে নামার নির্দেশও দেন আওয়ামী লীগ নেতা। বলেন, ‘এখনই সদস্য সংগ্রহ করতে হবে। প্রতিটি নির্বাচনী কেন্দ্রে এখন থেকে নির্বাচনী কমিটি করতে হবে। ঘরে ঘরে গিয়ে সদস্য সংগ্রহ করতে হবে।’

তবে দল ভারী করার জন্য খারাপ লোককে না টানার নির্দেশও দেন কাদের। বলেন, ‘দাগী, চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও স্বাধীনতাবিরোধীরা যেন দলে না ঢুকে, সেদিকে খেয়াল রাখবেন।’

জনগণের সঙ্গে আচরণ ভালো করতেও নেতা-কর্মীদের তাগাদা দেন কাদের। বলেন, ‘যতই উন্নয়ন করুন না কেন, আচরণ ভালো না করলে উন্নয়ন ম্লান হয়ে যাবে।’

‘জনগণকে খুশি রাখতে হবে। ক্ষমতার দাপট দেখাবেন না। ক্ষমতা চিরদিন থাকবে না। জনগণ আপনাদের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন। আপনারা জনগণের পাশে থাকবেন, তাঁদের জন্য কাজ করবেন।’

কাদের বলেন, সংসদ সদস্যদের কেবল নিজেদের সৎ থাকলে চলবে না। আশেপাশের মানুষদেরও সতার দিকে নজর রাখতে হবে। তিনি বলেন, ‘এমপির পিএস, এপিএস কমিশন খান, কিন্তু এমপি ভালো। আপনি যতই ভালো হন, আপনার পাশের লোক যদি খারাপ কাজ করে তার দায় এড়াতে পারবেন না।’

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড নিয়েও কথা বলেন কাদের। বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, আওয়ামী লীগ মামলা সাজিয়েছে। তারা বানিয়ে বানিয়ে মিথ্যা কথা বলে। মামলা দিয়েছে তত্ত্বাবধায়ক সরকার। আওয়ামী লীগ নয়।’

‘বিএনপি ভেবেছিল, খালেদা জিয়া জেলে গেলে লাখ লাখ মানুষ প্রতিবাদ করবে, রাস্তায় নেমে আসবে। কিন্তু কেউ আসেনি। মরা গাঙে জোয়ার আসে না। এখন বিএনপি দেশের বিষয়ে বিদেশিদের ডেকে এনে নালিশ করছে।’

শেখ হাসিনার সময় অপরাধ করে কেউ পার পাবে না বলেও জনিয়ে দেন কাদের। বলেন, ‘দুই জন মন্ত্রী দুদকের মামলায় নিয়মিত আদালতে হাজিরা দিচ্ছেন। সিরাজগঞ্জের মেয়র ও টাঙ্গাইলের এমপি কারাগারে। এ থেকেই প্রমাণিত হয়, শেখ হাসিনার হাত থেকে পার পাওয়ার উপায় নেই কারও।’

স্থানীয় সংসদ সদস্য এম এ মালেক, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজীর আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান প্রমুখ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন।



সাম্প্রতিক খবর

প্রত্যেকটা উৎসবে সবাই ভাই বোনের মত কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আমরা উদযাপন করে যাই: প্রধানমন্ত্রী

photo ঢাকা সংবাদদাতা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জমি সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানে হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দকে আশ্বস্থ করে বলেছেন, সরকার ইতোমধ্যেই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তিনি বলেন, ‘এই ঢাকেশ্বরী মন্দিরে জমি নিয়ে একটা সমস্যা ছিল। ইতোমধ্যেই সেই সমস্যাটা আমরা সমাধান করে ফেলেছি। বাকী কাজটা আপনাদের ওপরই নির্ভরশীল।’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বিকেলে

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment