আজ : ০৭:২৮, জুন ২৪ , ২০১৮, ১০ আষাঢ়, ১৪২৫
শিরোনাম :

জামিনও দিয়েছেন আদালত, এর সঙ্গে কোনো সমঝোতার বিষয় নেই: কাদের


আপডেট:১২:৫২, মার্চ ১৩ , ২০১৮
photo

ঢাকা প্রতিনিধি: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে সাজা দিয়েছেন আদালত। জামিনও দিয়েছেন আদালত। এতে সরকারের কোনো হস্তক্ষেপ নেই, কোনো দিন ছিল না। এর সঙ্গে কোনো সমঝোতার বিষয় নেই।

রাজধানীর মিরপুর-১২ নম্বরে আগুনে পুড়ে যাওয়া বস্তি পরিদর্শন শেষে মঙ্গলবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।গত ৭ মার্চ কারাগারে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের সাত নেতার সাক্ষাৎকার নিয়ে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, সেদিন সরকারের পক্ষ থেকে খালেদা জিয়াকে সমঝোতার প্রস্তাব দিয়েছেন ফখরুল।

বিষয়টিকে নাকচ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা আদালতের রায় বিশ্বাস করি। আদালত খালেদা জিয়াকে চার মাসের জামিন দিয়েছে, এটাতেও সরকারের কোনো প্রভাব বা হস্তক্ষেপ নেই। সেটা স্বাভাবিক নিয়মে যেভাবে চলছে। আজকে দেশে স্বাধীন বিচারব্যবস্থা এবং আদালতের প্রতি জনগণের যে শ্রদ্ধা সেটা চলছে।

তিনি বলেন, আদালত তাকে দণ্ড দিয়েছেন, আদালতই তাকে জামিন দিয়েছেন। এখানে বিএনপির হতাশার আর আনন্দের যে কারণ ওঠা-নামা করে এটা সত্যিই অবাক করার মতো।বিএনপি তলে তলে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা তো তৃণমূলের খবর জানি। তারা নির্বাচনী কাজ ঠিকঠাক চালিয়ে যাচ্ছে, এতে তাদের কোনো সমস্যা হচ্ছে না।

সোমবার ভোর ৪টার দিকে রাজধানীর মিরপুর ১২ নম্বরের ইলিয়াস আলী মোল্লা বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ২৩টি ইউনিট চেষ্টা চালিয়ে সকাল সোয়া ৭টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এর মধ্যেই বস্তির সহস্রাধিক ঘর পুড়ে ছাই যায়। এ ঘটনায় এক নারী আহত হয়েছেন।



সাম্প্রতিক খবর

খালেদা জিয়ার জামিনের বিরুদ্ধে করা আপিলের রায় ২ জুলাই

photo ঢাকা সংবাদদাতা: বাসে পেট্রোল বোমা হামলা চালিয়ে মানুষ হত্যার অভিযোগে কুমিল্লায় দায়ের করা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেওয়া ছয় মাসের জামিন আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের লিভ টু আপিল (আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন) শুনানি শেষ হয়েছে। এ বিষয়ে রায়ের জন্য আগামী ২ জুলাই দিন নির্ধারণ করেছেন আপিল বিভাগ। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে রবিবার (২৪ জুন) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment