আজ : ০৯:১৬, এপ্রিল ১৯ , ২০১৯, ৬ বৈশাখ, ১৪২৬
শিরোনাম :

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডর্নকে হত্যার হুমকি


আপডেট:০৯:০৫, মার্চ ২২ , ২০১৯
photo

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডর্নকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এ বিষয়ে স্থানীয় পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। খবর দ্য নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডের।

আরডর্নের টুইটার একাউন্টে একটি বন্দুকের ছবি ও তার সাথে ‘এরপর তুমি’ ক্যাপশন লিখে পোস্ট করা হয়েছে। পোস্টটি ৪৮ ঘণ্টা অনলাইনে ছিল। এরপর একাধিক ব্যবহারকারী টুইটার কর্তৃপক্ষের কাছে পোস্টটি নিয়ে রিপোর্ট করলে পোস্টটি সরিয়ে নেওয়া হয়। একইসঙ্গে পোস্টদাতার একাউন্টটিও বাতিল করে দেওয়া হয়।

একই ছবি ও ক্যাপশন দিয়ে নিউজিল্যান্ড পুলিশ ও আরডর্নের টুইটার একাউন্ট ট্যাগ করে আরও একটি পোস্ট করা হয়।উল্লেখ্য, বাতিল করা একাউন্টটিতে ইসলাম-বিরোধী ও শ্বেতাঙ্গ আধিপত্যবাদের সমর্থনে পোস্ট পাওয়া গেছে।নিউজিল্যান্ড পুলিশের এক মুখপাত্র জানান, তারা টুইটারের পোস্টগুলো সম্পর্কে অবগত। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।এদিকে, টুইটারের এক মুখপাত্র জানান, সহিংস হুমকি দেওয়া টুইটারের নীতিমালা বিরোধী।

মুখপাত্র বলেন, আমরা উল্লেখিত টুইটটি সম্পর্কে প্রথম টুইট পাওয়ার পরপরই এ বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। আমাদের টিম টুইটার থেকে ক্রাইস্টচার্চ হামলা সম্পর্কিত সকল অবৈধ ও নীতিমালা লঙ্ঘনকারী সকল পোস্ট সরিয়ে ফেলতে কাজ করে যাচ্ছে।তিনি আরও বলেন, আমরা এ বিষয়ে আইন প্রয়োগকারী বাহিনীকে সহযোগিতা করছি।

গত শুক্রবার (১৫ মার্চ) ক্রাইস্টচার্চে দুই মসজিদে হামলা চালায় এক বন্দুকধারী। এতে প্রাণ হারান ৫০ জন মানুষ। টুইটার ওই হামলায় হতাহতদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে একটি টুইট করার পর আরডর্নকে হুমকি দেওয়া বিষয়ক পোস্টটি তাদের নজরে আনা হয়।প্রসঙ্গত, শুক্রবার (২২ মার্চ) ক্রাইস্টচার্চ হামলায় নিহতদের স্মরণে নিউজিল্যান্ডজুড়ে শোক পালন করা হয়েছে।



সাম্প্রতিক খবর

সরকারের হস্তক্ষেপের কারণে খালেদা জিয়া জামিন পাচ্ছেন না : আলাল

photo ঢাকা প্রতিনিধি: বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেছেন, বাংলাদেশে খাতা-কলমে আইন আছে, প্রশাসনও আছে। কিন্তু আইনের শাসন বলতে যেটা বোঝায় সেটা কিন্তু আওয়ামী লীগের আমলে নেই। আইনের শাসন নেই বলেই দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া সরকারের হস্তক্ষেপের কারণেই মুক্তি পাচ্ছে না। আইন যদি থাকত আর আইনের বাস্তবায়ন থাকত তিনি অবশ্যই অনেক আগেই জামিন পেতেন। সরকারের পক্ষ থেকে বারবার জামিনে

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment