আজ : ০৭:৩০, ফেব্রুয়ারি ২৫ , ২০১৮, ১৩ ফাল্গুন, ১৪২৪
শিরোনাম :

আখেরি মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর কল্যাণ কামনা


আপডেট:০৫:৩৯, জানুয়ারি ১৪ , ২০১৮
photo

ঢাকা প্রতিনিধি: তীব্র শীত উপেক্ষা করেই রবিবার (১৪ জানুয়ারি) লাখো মানুষ অংশ নিয়েছিলেন বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতে। মুসলিম উম্মাহর সুদৃঢ় ঐক্য, দুনিয়া ও আখেরাতে শান্তি এবং দেশের কল্যাণ কামনা করা হয় মোনাজাতে। আখেরি মোনাজাতে আত্মশুদ্ধি ও দুনিয়ার সব বালা-মুসিবত থেকে হেফাজত করতে আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে রহমত প্রার্থনা করা হয়। লাখ লাখ মুসল্লির কণ্ঠে ‘আমিন, আল্লাহুম্মা আমিন’, ধ্বনিতে মুখরিত হয় টঙ্গীর তুরাগ তীরের ইজতেমা ময়দান। এর মধ্য দিয়ে শেষ হলো ইজতেমার প্রথম পর্ব।

রোববার (১৪ জানুয়ারি) সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে শুরু হয় আখেরি মোনাজাত। দীর্ঘ ৩৫ মিনিট বাংলায় আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন ঢাকার কাকরাইল মসজিদের মাওলানা হাফেজ মোহাম্মদ জোবায়ের। এর আগে বাংলায় হেদায়তি বয়ান করেন বাংলাদেশের আরেক মাওলানা আব্দুল মতিন।

আখেরি মোনাজাতে ধনী-গরিব, মালিক-শ্রমিক, শিশু-বৃদ্ধ নির্বিশেষে সব বয়সের বিভিন্ন পেশার দেশ-বিদেশের কয়েক লাখ মুসল্লি আল্লাহর দরবারে দু’হাত তোলেন। কৃতকর্মের জন্য নিঃশর্ত ক্ষমা, আত্মশুদ্ধি, দুনিয়ার সব বালা-মুসিবত, বিশ্ব মুসলিমের ঐক্য, শান্তি, দেশ ও বিশ্ব মানবতার কল্যাণ কামনায় দু’হাত তুলে আল্লাহর দরবারে ফরিয়াদ জানান।

আখেরি মোনাজাতে পথভ্রষ্ট বিশ্ব মুসলমানের সঠিক পথে চলার তৌফিক, তাবলিগ কাজে সব মুসলিমকে নিয়োজিত হওয়া, ইহকাল-পরকালের শান্তি কামনা করে পরম করুণাময় সৃষ্টিকর্তার কাছে আকুতি-মিনতি করেন। এ সময় লাখ লাখ মুসল্লি দু’হাত তুলে কান্নায় দু’চোঁখ ভেজান।

কনকনে শীত ও ঘন কুয়াশা উপেক্ষা করে বাস, ট্রাক, ট্রেন, নৌকা-লঞ্চসহ বিভিন্ন যানবাহনে চড়ে হাজার হাজার মুসল্লি টঙ্গীতে জমায়েত হন। আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত মুসল্লিদের আগমন অব্যাহত ছিল।

আখেরি মোনাজাত, ছবি টিভি থেকে নেওয়াইজতেমাস্থলে পৌঁছাতে না পেরে অনেক মুসল্লি আখেরি মোনাজাতের জন্য খবরের কাগজ, পাটি, বস্তা ও পলিথিন বিছিয়ে সড়কে, অলি-গলিসহ বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেন।

মোনাজাতের সময় ইজতেমা ময়দান ও আশেপাশের এলাকায় নেমে আসে পিনপতন নীরবতা। খানিক পর পর শুধু ভেসে আসে আমিন, ছুম্মা আমিন, আল্লাহুম্মা আমিন ধ্বনি। আর মানুষের কান্নার আওয়াজে বাতাস ভারী হয়ে ওঠে। আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের সন্তুষ্টি লাভের আশায় আঁকুতি জানান মুসল্লিরা। মোনাজাতে আত্মশুদ্ধি ও নিজ নিজ গুনাহ মাফের পাশাপাশি দুনিয়ার সব বালা-মুসিবত থেকে হেফাজত করার জন্য দুই হাত তুলে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে রহমত প্রার্থনা করেন তারা।

নানা বয়সী বিভিন্ন পেশার মানুষের পাশাপাশি নারীদেরও মোনাজাতে অংশ নিতে দেখা যায়। এমনকি বাসা-বাড়ি ও কারখানার ছাদ, নৌকা, বাসের ছাদ, ফুটওভার ব্রিজ-যে যেখানে পারছেন সেখানে বসেই দু’হাত তুলে মোনাজাতে অংশ নেন তারা।

আখেরি মোনাজাতে বঙ্গভবন থেকে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও গুলশানের কার্যালয় থেকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অংশ নেন। ইজতেমা ময়দানে মূল মঞ্চে বসে আখেরি মোনাজাতে শরিক হন মুসলিম দেশের কূটনীতিক, রাজনৈতিক নেতা ও পদস্থ সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তারা।

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের শুরু হবে আগামী ১৯ জানুয়ারি। ২১ জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এবারের বিশ্ব ইজতেমার আসর।



সাম্প্রতিক খবর

নিম্ন আদালতের নথি হাইকোর্টে এলে খালেদা জিয়ার জামিনের আদেশ

photo ঢাকা প্রতিনিধি: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করা জামিন আবেদনের ওপর শুনানি শেষ হয়েছে। নিম্ম আদালত থেকে রায়ের নথি পাওয়ার পর এ বিষয়ে আদেশ দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন হাইকোর্ট। রোববার দুপুরে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে এ আদেশ দেন। সংখ্যাধিক্য আইনজীবীর কারণে এজেলাশ কক্ষের পরিবেশ ‘অস্বাভাবিক’ হওয়ায়

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment