আজ : ০৩:৪৭, ফেব্রুয়ারি ১৭ , ২০১৯, ৫ ফাল্গুন, ১৪২৫
শিরোনাম :

এবার হজের খরচ বাড়ছে ২৫ হাজার টাকা!


আপডেট:০৭:১৮, ফেব্রুয়ারি ১১ , ২০১৯
photo

ঢাকা প্রতিবেদক: আসন্ন হজ মৌসুমে সৌদি সরকারের কারণে বাংলাদেশি হজ যাত্রীদের খরচ অতিরিক্ত ২৫ হাজার টাকা গুনতে হবে। সার্ভিস চার্জ বৃদ্ধি, অতিরিক্ত করারোপ এবং পরিবহন ব্যয় বৃদ্ধির কারণে এ খরচ বাড়বে। শনিবার ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, সার্ভিস চার্জ বৃদ্ধি, অতিরিক্ত করারোপ এবং পরিবহন ব্যয় গত বছরের চেয়ে দ্বিগুণের বেশি বৃদ্ধি করায় সৌদি রিয়াল ৭১৪ দশমিক ৫০ সমপরিমাণ (১৫ হাজার ৩২৬ টাকা ৫০ পয়সা) বৃদ্ধি পাবে।

এছাড়া গত বছরের অতিরিক্ত সার্ভিস চার্জের ওপর শতকরা ১২ শতাংশ করারোপ করায় ১৫৭ দশমিক ৫০রিয়াল সমপরিমাণ (তিন হাজার ৭০৯ টাকা) বৃদ্ধি পাবে। এ বছর ট্রেন ভাড়া শতভাগ বৃদ্ধি পাওয়ায় ২৬২ দশমিক ৫০ রিয়াল সমপরিমাণ (পাঁচ হাজার ৯৪৫ টাকা) বৃদ্ধি পাবে।

এছাড়াও রাজকীয় সৌদি সরকার কর্তৃক কর আরোপ করায় ২৫ টাকা ২৫ পয়সা বৃদ্ধি পাবে। সব মিলিয়ে ২৫ হাজার টাকার বেশি খরচ বাড়বে। সূত্র আরও জানায়, সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে চলতি বছরের হজ নীতি ও হজ প্যাকেজ ঘোষণা হতে পারে। গত বছরের তুলনায় চলতি বছর হজ প্যাকেজের খরচ বৃদ্ধি পাবে।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা বলেন, সৌদি সরকার ২৫ হাজার টাকা খরচ বৃদ্ধি করলেও বাংলাদেশি হজযাত্রী প্রতি খরচ কমবেশি ১২-১৫ হাজার টাকা বৃদ্ধি পেতে পারে। কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইতিমধ্যেই বিমান ভাড়া ১০ হাজার টাকা কমানো হয়েছে। সে ক্ষেত্রে হজ প্যাকেজে খরচ ১৫ হাজার টাকার বেশি বাড়বে না। তবে এ ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু বলা যাবে না।

উল্লেখ্য, গত বছরের মতো এবারও বাংলাদেশ থেকে সরকারি ও বেসরকারি মিলিয়ে মোট এক লাখ ২৭ হাজারের বেশি হজযাত্রী সৌদি যাবেন। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১০ হাজার ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ১৭ হাজারের বেশি হজযাত্রী যাবেন। ইতিমধ্যে ধর্ম মন্ত্রণালয় ও সৌদি সরকারের মধ্যে হজ চুক্তি সম্পাদিত হয়েছে। চুক্তিতে হজযাত্রীর কোটা গত বছরের সমসংখ্যক রাখলেও ধর্ম মন্ত্রণালয় অতিরিক্ত ২৫ হাজার কোটা বৃদ্ধির আবেদন জানিয়েছে।



সাম্প্রতিক খবর

আবুধাবি প্রতিরক্ষা প্রদর্শনীতে অংশ নিলেন প্রধানমন্ত্রী

photo আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবু ধাবিতে আন্তজার্তিক প্রতিরক্ষা প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছেন সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও দেশটির প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম এর আমন্ত্রণে পাঁচদিন ব্যাপী এ প্রতিরক্ষা প্রদর্শনীতে অংশ নেন তিনি। রোববার (১৭ ফেব্রুয়ারি) মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে অংশগ্রহণ শেষে জার্মানি থেকে

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment