আজ : ০৬:৫৯, সেপ্টেম্বর ২৫ , ২০১৮, ১০ আশ্বিন, ১৪২৫
শিরোনাম :

অনেকে আমাকে স্বৈরাচার বলেন, কিন্তু স্বৈরাচারী খুঁজে পাই না: এরশাদ


আপডেট:০৮:২৭, ফেব্রুয়ারি ২৪ , ২০১৮
photo

ঢাকা প্রতিনিধি: জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, বাংলা ভাষার জন্য অনেকে শহীদ হয়েছেন। কিন্তু কেউ সর্বস্তরে বাংলা চালু করেনি, আমি চালু করেছি। এরজন্য ১৯৮৭ সালে সংসদে আইন পাস করেছি।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় পার্টির বনানী কার্যালয়ে যোগদান ও জাতীয় পেশাজীবী সমাজের আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। এইচএম এরশাদ বলেন, আইনে ছিল, ইংরেজি সাইনবোর্ড হলে নিচে বাংলা থাকতে হবে। এখন সরকার সেটা করার চেষ্টা করছে। কিন্তু আমিই প্রথম চালু করি, আমিই অগ্রদূত।

স্বৈরাচার সরকার প্রসঙ্গে সাবেক এই প্রেসিডেন্ট বলেন, অনেকে আমাকে স্বৈরাচার বলেন। কিন্তু আমি কী স্বৈরাচারী করেছি খুঁজে পাই না। ‘আমার রাষ্ট্রের দায়িত্ব (ক্ষমতা) নেওয়ার ইচ্ছা ছিল না, জাস্টিস ছাত্তারের অনুরোধে দায়িত্ব নিয়েছিলাম, তিনি তখন দেশ চালাতে অপারগ ছিলেন।’ তিনি বলেন, আমি নির্বাচন দিয়ে ব্যারাকে ফিরে যেতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সবাই ভোট বর্জন করলো। তখন বাধ্য হয়ে দল গঠন করেছি।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন খান, সুনীল শুভরায়, যুগ্ম দফতর সম্পাদক এমএ রাজ্জাক খান প্রমুখ। অনুষ্ঠানে ডা. ফাহিম আল ফয়সাল ও ডা. জাফর মিয়ার নেতৃত্বে ৫৬ জন পেশাজীবী জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। এ সময় পেশাজীবীদের আহ্বায়ক কমিটি জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন পার্টি প্রধান এরশাদ।



সাম্প্রতিক খবর

অংশগ্রহণমূলক ভোট করতে সরকার কাজ করছে: ব্রিটিশ পররাষ্ট্রকে শেখ হাসিনা

photo আন্তর্জাতিক ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন যাতে ‘অংশগ্রহণমূলক, অবাধ ও সুষ্ঠু’ হয়, সেজন্য তার সরকার কাজ করে যাচ্ছে। ব্রিটিশ পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ বিষয়ক মন্ত্রী জেরেমি হান্ট সোমবার নিউ ইয়র্কে অবস্থানরত প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এ কথা বলেন।পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক জানান, জাতিসংঘ সদরদপ্তরে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment