আজ : ০৯:২২, সেপ্টেম্বর ২২ , ২০১৮, ৭ আশ্বিন, ১৪২৫
শিরোনাম :

সরকারি ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটছে আদালতের কার্যক্রমে: মির্জা ফখরুল


আপডেট:০৯:০৭, মার্চ ১৪ , ২০১৮
photo

ঢাকা প্রতিনিধি: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন হওয়ার পর তা অাপিল বিভাগে স্থগিত হওয়ায় আশাহত হয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার দাবি, সরকারি ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটছে আদালতের কার্যক্রমে।

বুধবার (১৪ মার্চ) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন ফখরুল। রাষ্ট্রপক্ষ ও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আবেদনের প্রেক্ষিতে সকালে খালেদার চার মাসের জামিন স্থগিত করে আদেশ দেন প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে আপিল বিভাগের চার বিচারপতির বেঞ্চ।

মির্জা ফখরুল বলেন, এ রায়ে আমরা আশাহত। একে একে সমস্ত প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করেছে সরকার। এখন বিচার বিভাগকেও ধ্বংস করতে চায়। বিচার বিভাগকে দলীয়করণের মাধ্যমে আমরা যেন আইনি সুবিধা না পাই সেই ব্যবস্থা করা হচ্ছে। বিএনপিকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখাই সরকারের মূল লক্ষ্য বলে অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব।

তিনি অভিযোগ করেন, খালেদা জিয়াকে ওকালতনামায় সই করতে দেওয়া হচ্ছে না। বিচার বিভাগকে পুরোপুরি দলীয়করণ করা হয়েছে। লিগ্যাল রিলিফ এবং আইনি সুবিধাও পাচ্ছে না বিএনপি। বিএনপি যখন নির্বাচন করতে চায়, তখনই এসব প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হচ্ছে। তারা বিচার বিভাগের ওপর চড়াও হয়েছে।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, খালেদা জিয়ার জামিন আপিল বিভাগ স্থগিত করে আমাদের বিস্মিত করেছে। বিএনপি প্রধানের আইনজীবীদের কথা না শুনে এ ধরনের আদেশ দেওয়া যুক্তিসংগত হয়নি। আদালতের এই রায়ে আমরা ক্ষুব্ধ ও ব্যথিত। আমরা এমনটি আশা করিনি।

ব্রিফিংয়ে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড. আব্দুল মঈন খান, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, আতাউর রহমান ঢালী, ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদিন, খালেদা জিয়ার আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী, বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন প্রমুখ।



সাম্প্রতিক খবর

এই অধিকার কে দিয়েছে আপনাদের, সরকারকে বি. চৌধুরীর প্রশ্ন

photo ঢাকা সংবাদদাতা: সরকারের কাছে অনেক ‘কেন’র উত্তর চেয়েছেন যুক্তফ্রণ্ট চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ. কিউ. এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। শনিবার জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নাগরিক সমাবেশে তিনি এসব প্রশ্ন করেন। রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে বিকেলে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বি.চৌধুরী বলেন, এক মাস আগে দেশের বাইরে থেকে নির্বাচনী পর্যবেক্ষকদের দেশে আসার অনুমতি দিতে হবে। এর পাশাপাশি জাতিসংঘ

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment