আজ : ০১:০৬, মে ২৪ , ২০১৮, ৯ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫
শিরোনাম :

সমর্থন পেলে জনগণের ভাগ্যের পরিবর্তন করব: এরশাদ


আপডেট:১০:০৫, ফেব্রুয়ারি ১২ , ২০১৮
photo

ঢাকা প্রতিনিধি: জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘আমি বড়লোকের রাজনীতি করি না, গরিবের রাজনীতি করি। আপনারা আমাকে সমর্থন দিলে দেখিয়ে দিতে চাই কীভাবে মানুষের পাশে থাকা যায়।’ নিজের দলকে ক্ষমতায় বসালে মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তনের আশ্বাস দেন সাবেক এই সেনাশাসক।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সোমবার দুপুরে রাজধানীর ভাষানটেক মোড়ে আয়োজিত নির্বাচনী প্রচারণমূলক পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন। ভাষানটেক ছাড়াও ধামালকোট ও কচুক্ষেত বাজার সংলগ্ন পথসভায় অংশ বক্তব্য দেন এরশাদ।

২০০৮ সাল ঢাকা-১৭ (ক্যান্টনমেন্ট, গুলশান, বনানী, ভাষানটেক) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন এরশাদ। তবে ২০১৪ সালের নির্বাচনে তিনি মহাজোটের কাছ থেকে আসনটি পাননি। আগামী নির্বাচনে এই আসন থেকে নির্বাচন করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর এই বিশেষ দূত।

আওয়ামী লীগ চিরকাল ক্ষমতায় থাকবে না মন্তব্য করে এরশাদ বলেন, ‘আমার সময়ে খুন-গুম ছিল না। মানুষ শান্তিতে ছিল, মানুষকে আবার শান্তিতে ফিরিয়ে আনতে চাই।’

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ‘পৃথিবী পরিবর্তনশীল, রাজনীতিও পরিবর্তনশীল। চিরদিন কেউ ক্ষমতায় থাকে না। জাতীয় পার্টি ধ্বংস করতে চেয়েছিল, কিন্তু ধ্বংস করতে পারেনি। আল্লাহর ইচ্ছা ছাড়া কিছুই করা সম্ভব না।’

উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে এরশাদ বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য আমরা যাত্রা শুরু করেছি। আমাদের কাজ করতে হবে। কর্মী ছাড়া দল শক্তিশালী হয় না। ক্ষমতায় যেতে হলে সুসংগঠিত হতে হবে।’

পথসভায় জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, এসএম ফয়সল চিশতী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



সাম্প্রতিক খবর

১০ বছর ধরে অবৈধ বসবাকারীদের সাধারণ ক্ষমার জন্য অনলাইন স্বাক্ষর অভিযান

বিশেষ প্রতিনিধি: ব্রিটেনে অবৈধভাবে বসবাসকারি ইমিগ্রান্ডদের সাধারণ ক্ষমা ঘোষণার দাবীটি ক্রমাগত জোরদার হয়ে ওঠেছে। ইতোমধ্যে নব নিযুক্ত হোম সেক্রেটারি ইমিগ্রান্ডদের স্বার্থ বিরোধী দুটি ধারা বাতিল ঘোষণা করেছেন। ব্রিটিশ ফরেন সেক্রেটারি ও লন্ডনের সাবেক মেয়র বরিস জনসন বরাবরই ইল্লিগ্যাল ইমিগ্রান্টদের সাধারণ ক্ষমা ঘোষনার পক্ষে মতামত ব্যক্ত করে আসছেন। সম্প্রতি স্টিভ পার্কার

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment