আজ : ০৮:৫০, ফেব্রুয়ারি ২৯ , ২০২০, ১৭ ফাল্গুন, ১৪২৬
শিরোনাম :

ডেনমার্ক এ শারদীয় দূর্গা উৎসব উদযাপিত


আপডেট:০৩:২৮, অক্টোবর ২৫ , ২০১৫
photo

ডেনমার্ক সংবাদদাতা : বাংলার ঋতুচক্রে যখন শরতের আগমন ঘটে ,তখন এই শরতেই মর্ত্যে আসেন দেবী দুর্গা। কৈলাস ছেড়ে প্রতি বছর তিনি মর্ত্যে আসেন বাবার বাড়িতে কন্যারূপে। তাঁর সঙ্গে আসেন লক্ষী, সরস্বতী, কার্তিক,গনেশ। দেবাদিদেব শিবও বাদ যান না। দুষ্টের দমন আর শিষ্টের পালনে দুর্গতনাশিনীর আগমন আনন্দে বিহ্বল সারা পৃথিবীর হিন্দু সম্প্রদায়ের মতো ডেনমার্কের কোপেনহেগেন এর সনাতনী হিন্দু সম্প্রদায়ও।এখানে পাশাপাশি সুইডেনের মাল্মো শহরের সনাতন সম্প্রদায় এর প্রবাসীরা যোগ দেন ।

বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা ও আনন্দ আয়োজনে ডেনমার্কে উদযাপিত হলো সনাতনী হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। কোপেনহেগেন এর হিন্দু সম্প্রদায়ের সংগঠন বাংলাদেশ কালটারাল এসোসিয়েসান উদ্যোগে আয়োজিত দুর্গাপূজার বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যে ছিল শাস্ত্রীয়মতে পূজার্চনা,অঞ্জলি,আরতি নৃত্য,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান,মহাপ্রসাদ বিতরন।এখানে পাশাপাশি সুইডেনের মাল্মো শহরের সনাতন সম্প্রদায় এর প্রবাসীরা যোগ দেন ।

হিন্দু রমনীরা মেতে ওঠেন সিঁদুর খেলায়।বিদায় বেলায় বেজেছে ঢাক-ঢোল-কাঁসার বাদ্য, উলুধ্বনিতে মুখরিত হয়েছে সংঘ প্রাঙ্গণ।ভক্তদের চোখের জলে ভাসিয়ে সপরিবারে মর্ত্যলোকে চলে গেলেন দেবী দুর্গা। সনাতন হিন্দু ধর্মাম্বলিদের বিশিস্ট নাগরিক সুশান্ত দে, ননী গোপাল দাশ , সুভাষ ঘোষ ,টিকলু দাশ ও,হরেন্দ্র নাথ ঘোষ , সামি দাস ও দীপঙ্কর পাল এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে ২০১২ সাল থেকে কোপেনহেগেন শহরে দুর্গাপূজা পালিত হয়ে আসছে।

শারদীয় দুর্গোৎসবের মঞ্চসজ্জা ছিল বেশ নান্দনিক। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে নতুন প্রজন্মের শিশু ও কিশোর-কিশোরীদের নৃত্য অনুষ্ঠান ছিল বেশ মনোগ্রাহী। বিপুল সংখ্যক প্রবাসী সনাতনী হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন তিনদিনব্যাপী এই দুর্গোৎসবে অংশ নেন।হিন্দু সম্প্রদায়ের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের,সাধারণ সম্পাদক ড. বিদ্যুত বড়ুয়া সহ আওয়ামী লীগের ফাহমিদ আল মাহিদ , আবু সাইদ রবিন ও হিল্লোল বড়ুয়া সহ প্রমুখ।



সাম্প্রতিক খবর

টাওয়ার হ্যামলেটসে নবম পরিচ্ছন্ন সপ্তাহ শুরু

photo লন্ডনবিডিনিউজ২৪ টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের নবম পরিচ্ছন্ন অভিযান সপ্তাহ ২২ ফেব্রুয়ারী শনিবার থেকে শুরু হয়েছে। ঐদিন সকাল সাড়ে ১০টায় মাইল এন্ড পার্কে পরিচ্চছন্ন অভিযানে মেয়র জন বিগস এর সাথে যোগ দেন স্থানিয় বাসিন্দা, কাউন্সিল স্টাফ, স্থানিয় ব্যবসায়ি ও স্কুল শিক্ষার্থীরা। `নিজের এলাকাকে ভালোবাসুন' এই বার্তা ছড়িয়ে দেয়ার লক্ষ্যে কাউন্সিল কিছু দিন পর পর এই পরিচ্ছন্ন

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment