আজ : ১২:১০, মার্চ ২৩ , ২০১৯, ৮ চৈত্র, ১৪২৫
শিরোনাম :

যুক্তরাজ্যের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিসের বহিষ্কার দাবিতে মুসলিম নারীদের চিঠি, তদন্ত শুরু


আপডেট:০৬:০৬, অগাস্ট ১০ , ২০১৮
photo

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বোরকা নিয়ে মুসলিম নারীদের কটূক্তি করা যুক্তরাজ্যের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনকে কনজারভেটিভ পার্টি থেকে বহিষ্কার করার দাবি জানিয়েছেন মুসলিম নারীরা। বহিষ্কারের দাবি জানিয়ে পার্টির সভাপতি ব্র্যানডন লুইসের কাছে চিঠি লিখেছেন নেকাব বা বোরকা পরা ১০০ নারী। অন্যদিকে বৃহস্পতিবার (৯ আগস্ট) বরিসের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের জন্য দলীয়ভাবে তদন্ত শুরু করেছে কনজারভেটিভ পার্টি। বৃহস্পতিবার দেশটির শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম স্কাই নিউজে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে একথা জানানো হয়েছে। চিঠিটিও প্রকাশ করেছে এই গণমাধ্যম।

চিঠিতে বলা হয়েছে, জনসন শুধু ক্ষমা প্রকাশ করলে তা যথেষ্ট হবে না। কারণ তিনি ইচ্ছাকৃতভাবে এটা করেছেন। নিজেদের পক্ষে কথা বলার এবং পোশাক বাছাইয়ের সক্ষমতা নারীদের আছে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে চিঠিতে। জনসনের সঙ্গে সম্পৃক্ত একটি সূত্রের বরাত দিয়ে স্কাই নিউজ জানিয়েছে, ইতোমধ্যে তার বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে কনজারভেটিভ পার্টি।

গত ৬ আগস্ট ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফে প্রকাশিত এক নিবন্ধে বরিস জনসন লিখেছিলেন, নিকাবকে নিষিদ্ধ করা উচিত হবে না কিন্তু এটা দেখতে ‘হাস্যকর’ লাগে। আর মুসলিম নারীরা বোরকা পরলে তাদের ‘চিঠির বাক্স’ এবং ‘ব্যাংক ডাকাত’দের মতো দেখায়।

এরপর ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন গত মাসে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করা জনসন। কনজারভেটিভ মুসলিম ফোরামের প্রতিষ্ঠাতাদের মতে, জনসনের এই মন্তব্য কমিউনিটির মধ্যকার সম্পর্ককে হুমকির মুখে ফেলবে।



সাম্প্রতিক খবর

জেসিন্ডার মতো নেতা দরকার যুক্তরাষ্ট্রের : নিউইয়র্ক টাইমস

photo আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গত ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে একজন অস্ট্রেলীয় সন্ত্রাসীর গুলিতে নিহত হয়েছে ৫০ জন মুসলমান। ব্রেন্টন ট্যারেন্ট নামের ওই হামলাকারী তাদের হামলার ভয়াবহতা বুঝাতে হামলার সেই ঘটনা ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ছেড়ে দিয়েছিল। সব মিলিয়ে পুরো বিশ্বে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছিল। কিন্তু এই সপ্তাহ পুরো বিশ্ব দেখেছে, নিউজিল্যান্ডের

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment