আজ : ১২:৩৮, মার্চ ২৩ , ২০১৯, ৮ চৈত্র, ১৪২৫
শিরোনাম :

ব্রিটিশ বাংলাদেশি নারীদের কর্মসংস্থানে বিশেষ সহায়তার আশ্বাস


আপডেট:০৫:৫৫, জানুয়ারি ৫ , ২০১৯
photo

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কর্মহীন ব্রিটিশ বাংলাদেশি নারীদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিতে সহায়তা বৃদ্ধির আশ্বাস দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের কর্মসংস্থান ও পেনশন মন্ত্রী অ্যাম্বার রুড। ওয়েস্ট মিডল্যান্ড অঞ্চল পরিদর্শনে গিয়ে তিনি বাংলাদেশি নারীদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তাদের কর্মদক্ষতা বৃদ্ধিতে ইতোমধ্যেই যেসব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, তা আরও জোরালো ও গতিশীল করা হবে।

ব্রিটিশ সরকারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সেখানকার কর্মজীবী নারীদের মধ্যে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানিদের সংখ্যা সর্বনিম্ন। ইস্ট বার্নিংহামে রয়েছেন উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বাংলাদেশি। গত বছরের সেপ্টেম্বরে সেখানকার কর্মসংস্থান কেন্দ্র (জব সেন্টার) থেকে তাদের বিশেষ সহায়তা দেওয়ার উদ্যোগ নেয় সরকার। এক পাইলট প্রকল্পের মাধ্যমে বাংলাদেশি ও পাকিস্তানি নারীদের কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা দূর করার উদ্যোগ নেওয়া হয়।

সরকারের ওই কর্মসংস্থান কেন্দ্রটির অবস্থান ইস্ট বার্নিংহামের ইয়ার্ডলে। শুক্রবার সেখানে গিয়ে অ্যাম্বার রুড বলেছেন, ‘প্রথমবারের মতো ব্রিটিশ-পাকিস্তানি ও ব্রিটিশ-বাংলাদেশি নারীদের কর্মসংস্থানে বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আমি যখন নারীদের জন্য আমাদের কল্যাণমূলক প্রকল্পগুলোর পরিস্থিতি উন্নত ও স্বচ্ছ করার কথা বলছি, ওয়েস্ট মিডল্যান্ড তখন এর নেতৃস্থানীয় ভূমিকা নিয়েছে।’

স্থানীয় আইনপ্রণেতা জেস ফিলিপস-এর তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হচ্ছে সেই বিশেষ প্রকল্প। এর অংশ হিসেবে নারীদের প্রশিক্ষণ, মনোবল বৃদ্ধি ও দক্ষতা অর্জনে সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। এরপর থেকে পাকিস্তানি ও বাংলাদেশি নারীদের কর্মসংস্থান বাড়তে শুরু করে। মন্ত্রী রুড জানিয়েছেন, তার প্রত্যাশা অনুযায়ী আরও বেশি করে এই এমন প্রণোদনার উদ্যোগ নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, কর্মদক্ষতা বাড়ানোর ক্ষেত্রে ওয়েস্ট মিডল্যান্ডের প্রশ্নাতীত সুনাম রয়েছে। ২০১০ সাল থেকে ২০১৮ পর্যন্ত ২ লাখ ৭৬ হাজার কর্মহীনের জন্য কাজের সুযোগ সৃষ্টিতে সক্ষম হয়েছে ওই অঞ্চলের কর্মসংস্থান কেন্দ্র। এরমধ্যে ১ লাখ ২৮ হাজার মানুষ কাজের সুযোগ পেয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি ও ব্যবসা খাতে।



সাম্প্রতিক খবর

জেসিন্ডার মতো নেতা দরকার যুক্তরাষ্ট্রের : নিউইয়র্ক টাইমস

photo আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গত ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে একজন অস্ট্রেলীয় সন্ত্রাসীর গুলিতে নিহত হয়েছে ৫০ জন মুসলমান। ব্রেন্টন ট্যারেন্ট নামের ওই হামলাকারী তাদের হামলার ভয়াবহতা বুঝাতে হামলার সেই ঘটনা ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ছেড়ে দিয়েছিল। সব মিলিয়ে পুরো বিশ্বে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছিল। কিন্তু এই সপ্তাহ পুরো বিশ্ব দেখেছে, নিউজিল্যান্ডের

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment