আজ : ০৫:৪৩, মে ২০ , ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬
শিরোনাম :

একাই ছিল ক্রাইস্টচার্চের হামলাকারী: নিউ জিল্যান্ড পুলিশ


আপডেট:০৭:৩৪, মার্চ ১৭ , ২০১৯
photo

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে হামলার দায়ে আদালতে অভিযুক্ত হওয়া ওই ব্যক্তি একাই হামলা চালিয়েছিলো বলে ধারণা করছে নিউ জিল্যান্ড পুলিশ। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে আরও তিনজনকে আটক করলেও তাদের সম্পৃক্ততা না পাওয়ার কথা জানিয়েছেন সেদেশের পুলিশ কমিশনার মাইক বুশ। তবে তিনি বলেছেন এখনই তারা কোনও সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে চাইছেন না।

গত শুক্রবার নিউ জিল্যান্ডের ইতিহাসে সবচেয়ে নৃশংস সন্ত্রাসী হামলায় ৫০ জন নিহত ও অপর ৫০ জন আহত হয়। অস্ট্রেলীয় নাগরিক ২৮ বছর বয়সী ব্রেনটন ট্যারান্ট নামে স্বঘোষিত এক শ্বেতাঙ্গ আধিপত্যবাদী হামলার দৃশ্য সরাসরি ফেসবুকে সম্প্রচার করে। ওই ভিডিওতে তাকে নিজের বন্দুক দিয়ে নির্বিচারে গুলি ছুড়তে দেখা যায়। ঘটনার পরই তাকেসহ চারজনকে আটকের কথা জানায় দেশটির পুলিশ।

শনিবার প্রধান সন্দেহভাজন হিসেবে কারাবন্দিদের শার্ট ও হ্যান্ডকাফ পরিহিত এক ব্যক্তিকে আদালতে তোলা হয়। ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে তাকে হাসতেও দেখা যায়। তার বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনা হলেও আশা করা হচ্ছে আরও বেশ কয়েকটি অভিযোগ দায়ের করা হবে।

এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ কমিশনার মাইক বুশ জানিয়েছেন, বন্দুক হামলার জন্য কেবল ২৮ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হচ্ছে। তিনি জানান, পুলিশ কর্মকর্তারা সাহসের সঙ্গে তাকে গুলি ছোড়া থেকে নিবৃত্ত করে আটক করে।

কমিশনার বুশ বলেন, ঘটনাস্থল থেকে আটক অপর দুই ব্যক্তি এর সঙ্গে বলে বিশ্বাস করছে না পুলিশ। তিনি জানান, এক নারীকে কোনও ধরনের অভিযোগ ছাড়াই মুক্তি দেওয়া হয়েছে আর অপর এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে আগ্নেয়াস্ত্র সংক্রান্ত অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে। এছাড়া এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত হিসেবে ১৮ বছর বয়সী একজনকে আটক করা হয়। সোমবার তাকে আদালতে তোলা হতে পারে বলে জানিয়েছে পুলিশ। আটক কারোর বিরুদ্ধেই আগের কোনও অপরাধের রেকর্ড নেই।

তবে পুলিশ কমিশনার মাইক বুশ সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ‘এই ঘটনায় সত্যিকার অর্থে কতজন জড়িত ছিলো তা নিয়ে আমরা নিশ্চিত হওয়ার আগ পর্যন্ত কোনও সিদ্ধান্তে পৌঁছাচ্ছি না’। ব্রেনটন ট্যারান্টকে আগামী ৫ এপ্রিল আবারও আদালতে তোলা হবে।

রবিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন বলেছেন, সোমবার অনুষ্ঠিতব্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে বন্দুক নীতি পরিবর্তন সংক্রান্ত ইস্যুতে আলোচনা হবে। তিনি বলেন, আমাদের বন্দুক আইনে পরিবর্তন আনা হবে। মঙ্গলবার পার্লামেন্ট নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবে বলেও জানান তিনি। বুধবার নাগাদ নিহতদের মরদেহ তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।



সাম্প্রতিক খবর

যুক্তরাষ্ট্র-ইরান যুদ্ধাতঙ্ক, মক্কায় জরুরি বৈঠক ডেকেছেন বাদশাহ

photo আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের সাথে ইরানের যুদ্ধ লেগে যাওয়ার সম্ভাবনায় পুরো মধ্যপ্রাচ্য জুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এজন্য সৌদি বাদশাহ সালমান ৩০শে মে মক্কায় এক জরুরি বৈঠকে বসতে আরব লীগ এবং উপসাগরীয় দেশগুলোর জোট জিসিসি সদস্যদের আমন্ত্রণ পাঠিয়েছেন। খবর বিবিসি বাংলার। সৌদি বার্তা সংস্থা এসপিএ সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, সংযুক্ত

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment