আজ : ০২:১০, জুলাই ২২ , ২০১৯, ৬ শ্রাবণ, ১৪২৬
শিরোনাম :

মৃত ও প্রবাসীদের ভোট যেন কাস্ট না হয়: সিইসিকে আরিফুল হক


আপডেট:০২:৪০, অগাস্ট ৯ , ২০১৮
photo

ঢাকা সংবাদদাতা: সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দুই কেন্দ্রে পুনরায় ভোট নেয়ার সময় যেসব ভোটার ইতোমধ্যে মারা গেছেন অথবা যারা প্রবাসে আছেন তাদের ভোট যেন প্রয়োগ না করা হয় সে ব্যাপারে সতর্ক থাকতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন এগিয়ে থাকা বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার সঙ্গে দেখা করতে এসে তিনি এই অনুরোধ জানান। বের হয়ে সিলেটের সাবেক এই মেয়র সাংবাদিকদের সঙ্গেও কথা বলেন।

গত ৩০ জুলাই রাজশাহী ও বরিশালের সঙ্গে সিলেট সিটিতে ভোটগ্রহণ করা হয়। বাকি দুই সিটিতে ফলাফল ঘোষণা করা হলেও সিলেটে ফলাফল ঝুলে আছে। তবে বিএনপির প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী এগিয়ে আছেন, যার মেয়র হওয়ার বিষয়টি এখন আনুষ্ঠানিক ঘোষণার বাকি।

সিলেট সিটির ১৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৩২টির ফলা ঘোষণা করা হয়েছে। এতে প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বদর উদ্দিন আহমেদ কামরানের চেয়ে চার হাজার ৬২৬ ভোটে এগিয়ে আছেন আরিফুল হক চৌধুরী। আগামী ১১ আগস্ট স্থগিত দুই কেন্দ্রে ভোট হবে। এর মধ্যে গাজী বোরহানুদ্দীন মাদ্রাসা কেন্দ্রে দুই হাজার ২২১ ভোট এবং হবিনন্দি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই হাজার ৫৬৬ ভোট রয়েছে।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে আরিফুল হক বলেন, ‘সিলেটে যেসব ভোটার মৃত্যুবরণ করেছেন এবং প্রবাসে আছেন তাদের নামের তালিকাটা প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাছে দিয়েছি। তাদের (ইসির) প্রতি আমার অনুরোধ থাকলো এসব ভোট যেন কাস্ট না হয়।’ তিনি বলেন, ‘এমনিতেও আমি অনেক ভোটে এগিয়ে আছি। এখন বিষয়টা ওনারা (ইসি) দেখবেন।’

সিইসি কী বলেছেন সাংবাদিকের এমন প্রশ্নে আরিফুল হক বলেন, ‘সিইসি বলেছেন, এটা তারা দেখবেন। সার্বিকভাবে সিলেটের নির্বাচন কেমন হয়েছে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে আরিফুল হক বলেন, ‘এগুলো বলে লাভ নাই, আমার মনে হয় লাইভ হলে ভালো হতো। আপনারা এগুলো জনগণকে দেখান না।’

সিলেট সিটির নির্বাচন নিয়ে সার্বিকভাবে সিইসিকে কী জানানো হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বলার জায়গায সব বলেছি। আমি এখন আপনাদেরকে লাইভ (সরাসরি প্রচার) ছাড়া কিছু বলতে চাই না। লাইভ হলে আপনারা কাট করতে পারবেন না। আর না হলে আসল কথাটা জনগণ জানলো না।’

ভোটের দিন আপনি বলেছিলেন ভোট সুষ্ঠুভাবে হচ্ছে না, নানা অনিয়ম হচ্ছে, তারপরও দেখা গেল আপনি ভোটে অনেক এগিয়ে আছেন? জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি প্রথম থেকে বলেছি, জনগণের ভোটে আমি নির্বাচিত হয়েছি। আমি প্রত্যেকটা মিডিয়ার সামনে একই কথা বলেছি, সুষ্ঠু-নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আমি এক লাখের উপরে ভোট পাবো। কারণ জনগণের প্রতি আমার কনফিডেন্স (আস্থা) আছে। আমি সে কনফিডেন্স নিয়েই কথা বলেছি। তার প্রমাণও পেয়েছেন। শত চেষ্টা করা সত্ত্বেও, অনেক অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটানো সত্ত্বেও, যেটা মিডিয়াতে অনেকটা প্রকাশ হয়েছে অনেকটা প্রকাশ হয়নি, তারপরেও আমি অনেক এগিয়ে আছি।’

আরিফুল অভিযোগ করেন, ‘সিলেটে ভোটের আসল চিত্র জনগণ দেখার সুযোগ পায়নি। তারপরও আল্লাহর অশেষ মেহেরবানিতে আমি এখনও এগিয়ে আছি।’

Posted in সিলেট


সাম্প্রতিক খবর

কেবিনেট মেম্বার আমিনা আলীর সাথে কেয়ারার্স এসোসিয়েশনেের নেতৃবৃন্দের সভা

photo লন্ডনবিডিনিউজ২৪ঃ একজন কেয়ারারের সপ্তাহে ১২ ঘন্টা কন্ট্রাক্টের আওতায় প্রতিদিন সকালে ১ ঘন্টা, দুপুরে ৩০ মিনিট আবার বিকেলে ৩০ মিনিট কাজ দিয়ে সারাদিন আটকে রেখে কন্ট্রাক্টের অপব্যবহার না করে এজেন্সি গুলোকে কাজে শিফটিং ব্যবস্থা চালু করে এক শিফটের মধ্যে কন্ট্রাক্টের আওয়ার নিয়ে আনা ও অন্যান্য দাবী নিয়ে গত ১৫ জুলাই সোমবার বিকেল ৬ টায় টাওয়ার হ্যামলেট কাউন্সিলের এডাল্টস,

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment