আজ : ০৪:৩৯, মে ২৪ , ২০১৯, ১০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬
শিরোনাম :

লন্ডনে ডি এম হাইস্কুলের প্রাক্তন ছাত্র ছাত্রীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান


আপডেট:১১:৪০, এপ্রিল ১৯ , ২০১৯
photo
লন্ডনবিডিনিউজ২৪ঃ বিলেতের হাজারো ব্যস্ততার মধ্যে ও বিয়ানিবাজার উপজেলার এইতিহ্যবাহী ঢাকাউত্তর মহাম্মদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রছাত্রীরা ১৪ এপ্রিল রবিবার স্কুল জীবনের ফেলে আসা স্মৃতি নিয়ে হাজির হয়েছিলেন পূর্ব লন্ডনের কমার্শিয়াল রোডের মালবারি গার্ল স্কুলে। সাথে ছিলেন অভিভাবক, শুভাকাঙ্ক্ষী ও কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ। সম্মান জানালেন সেই স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক মুহিউল ইসলাম জায়গিরদার ও সাবেক সহকারী শিক্ষক আব্দুল আজিজ তকিকে। দুপুর ১২টায় জাতীয় সংগীত, পতাকা উত্তোলন ও পবিত্র কালামে পাক থেকে তেলাওয়াতের মাধ্যমে দিনের কার্যক্রম শুরু হয়। সংগঠনের আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা ফয়জুর রহমান খাঁনের সভাপতিত্বে দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন এরশাদ আলমগীর। ঢাকাউত্তর মোহাম্মদপুর উচ্চ বিদ্যালয় প্রাক্তন শিক্ষার্থী পুনর্মিলনী বাস্তবায়ন কমিটির ইউকের ছাত্র-ছাত্রী। শিক্ষক ও অভিভাবকদের আগমনে এই সম্মেলন পুর্নতা লাভ করে। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ডিএম হাইস্কুলের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক ও একাধারে ৪০ বছর শিক্ষা সেবায় নিয়োজিত বর্তমান কানাডা প্রবাসী মুহিউল ইসলাম জায়গীরদারের উপস্থিতির মাধ্যমে। বর্ণাঢ্য এই পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লন্ডন বারা অব টাওয়ার হ্যামলেটসের স্পীকার কাউন্সিলার আয়াস মিয়া, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাউথবারা টাউন কাউন্সিলের মেয়র কাউন্সিলার মোহাম্মদ জুলহাস উদ্দিন। বক্তব্য রাখেন সংগঠনের আহ্বায়ক মনজুরুস সামাদ চৌধুরী মামুন, কাউন্সিলার আহবাব হোসেন, কাউন্সিলার শাহ সোহেল আমিন, কাউন্সিলার আসমা ইসলাম, বিয়ানীবাজার ক্যান্সার হাসপাতালের সিইও সাহাব উদ্দিন, সংগঠনের সদস্য সচিব নাহিন মাহমুদ, উপদেষ্টা আব্দুল আজিজ তকি, অর্থ সচিব হেলাল আহমদ ও রহিমা বেগম প্রমুখ। দিনভর অনুষ্ঠান মালায় ছিল পারস্পরিক পরিচিতি, সোনালী অতিতের গল্প, শিশুদের চিত্রাংকন, খেলা দোলা, পুরস্কার বিতরণী, রাফেল ড্র ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। দিনের বিশেষ আকর্ষণ ছিলো প্রধান অতিথি মহিউল ইসলাম জায়গীরদারকে তার মহৎ কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ সম্মানসূচক এ্যাওয়ার্ড প্রদান। তাছাড়া প্রধান অতিথি ও তার সহধর্মিনীকে নতুন চাদরে মুৃড়িয়ে সম্মান জানান মুক্তিযোদ্ধা ফয়জুর রহমান খাঁন ও তার সহধর্মিনী। সাথে ছিলেন মিসেস মাহমুহ ও মিসেস আহমদ । এসময় কমিটির পক্ষ থেকে আরও কয়েকটি উপহার তার হাতে তুলে দেয়া হয়। পুনর্মিলনী উপলক্ষ্যে মোড়ক উন্মোচন করা হয় “স্মৃতির আঙ্গিনা” নামক ম্যাগাজিন। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মুহিউল ইসলাম জায়গীরদার তার ছাত্রছাত্রীদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করে বলেন, আজ আমি অত্যন্ত আনন্দিত, আবেগ-আপ্লুত ! লন্ডনে আমার শত শত ছাত্রছাত্রীদের মাঝে উপস্থিত হতে পেরেছি। আজকের এই সম্মান প্রাপ্তি আমার শিক্ষকতা জীবনের স্বার্থকতা। তিনি ডিএম হাইস্কুলের উন্নয়নে প্রবাসীদের অবদানের কথা কৃতজ্ঞতা ভরে স্মরণ করেন। প্রধান বক্তা স্পীকার কাউন্সিলার আয়াস মিয়া বলেন, মহিউল ইসলাম জায়গীরদার আমাদের সমাজের একজন নক্ষত্র। তিনি শুধু বিয়ানীবাজার বাসির নয়, তিনি সমগ্র বাংলাদেশের। তিনি শুধু শিক্ষা সেবা দেননি। তিনি শিক্ষকদের দাবী আদায়ে সচেষ্ট ছিলেন, ছিলেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির ভাইস প্রেসিডেন্ট । সংগঠনের আহ্বায়ক মনজুরুস সামাদ চৌধুরী মামুন তার বক্তব্যে মহিউল ইসলাম জায়গীরদারের জীবনের উপর একটি স্মারক গ্রন্থ প্রকাশের ঘোষণা দেন। তিনি স্কুলে সাবেক এই প্রধান শিক্ষকের নামে একটি ভবণ নির্মাণের দাবী জানান। বিয়ানীবাজার ক্যান্সার হসপিটালের সিইও সাহাব উদ্দিন তার বক্তৃতায় ঢাকাউত্তর মোহাম্মদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের জন্য বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্নয়ের ঘোষণা দেন। অনুষ্ঠানের শেষের দিকর রাফেল ড্র বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। এদিকে বাংলাদেশ থেকে আগত সংগীত শিল্পী পলাশ ও অন্যান্য শিল্পীরা অনুষ্ঠানের শেষ অবদি শ্রোতাদের গানে গানে মাতিয়ে রাখেন। অনুষ্ঠান সফল করায় সদস্য সচিব নাহিন মাহমুদ কমিটির পক্ষ থেকে প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী’ শিক্ষক, অভিভাবক, দাতা সদস্য, কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ, মিডিয়া, শিল্পী ও ক্যাটারিং এবং হল কর্তৃপক্ষ সহ সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এছাড়াও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ব্যারিস্টার আতাউর রহমান,  কাউন্সিলার সাবিনা আক্তার, কাউন্সিলার এহতেশাম’ কাউন্সিলার দিপা দাস সাংবাদিক আব্দুল মুনিম জাহেদী ক্যারল, বিয়ানীবাজার প্রগতি এডুকেশন ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ, বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ সমিতির সভাপতি আব্দুল করিম নাজিম, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, আজাদ হোসেন, রাজনৈতিক সাদেক খাঁন সহ কমিউনিটির বিপুল সংখ্যক পরিচিত মুখ।


সাম্প্রতিক খবর

পদত্যাগের ঘোষণায় থেরেসা মে

photo আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। কনজারভেটিভ দলের এই নেতা আগামী ৭ জুন পদত্যাগ করছেন বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসি। ব্রেক্সিট অর্থাৎ ব্রিটেনের ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ত্যাগের ব্যাপারে তার নতুন পরিকল্পনা তার মন্ত্রীসভায় ও পার্লামেন্টে অনুমোদিত হবে না এটা স্পষ্ট হবার পরই তিনি পদত্যাগ করলেন। শুক্রবার লন্ডনে ১০ নম্বর ডাউনিং

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment