আজ : ০১:২৫, অক্টোবর ১৬ , ২০১৮, ৩০ আশ্বিন, ১৪২৫
শিরোনাম :

বিএনপি-জামায়াত সরকারকে উৎখাত করতে চেয়েছিল: নাসিম


আপডেট:০২:৫৭, অগাস্ট ৯ , ২০১৮
photo

ঢাকা সংবাদদাতা: স্কুলশিক্ষার্থীদের আন্দোলনে বিএনপি-জামায়াত কালো থাবা বিস্তার করে গণতান্ত্রিক সরকারকে উৎখাত করতে চেয়েছিল বলে মন্তব্য করে ১৪ দলের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, তাদের (বিএনপি- জামায়াত) কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জন হয়নি। মুক্তিযুদ্ধের শক্তি ঐক্যবদ্ধ ছিলো বিধায় তারা সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। তারা শুধু ব্যর্থ হয়নি তাদের মুখোশ উন্মোচিত হয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার (৯ আগস্ট) রাজধানীর তোপখানা রোডস্থ ওয়ার্কার্স পার্টির কার্যালয়ে ১৪ দল আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট বুরোর সদস্য আনিসুর রহমান মল্লিকের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল ইসলাম, বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

সম্প্রতি ড. কামাল হোসেনের বক্তব্যের প্রেক্ষিতে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে ১৪ দলের এই মুখপাত্র বলেন, ‘আপনারা (সাংবাদিক) এ কদিন ধরে দেখেছেন- দেশের কয়েকজন নামকরা রাজনীতিবিদরা কি কথা বলেছে, তারা উস্কানিমূলক কথা বলেছেন। একজন মানুষ যখন ব্যর্থ হয় তখন তিনি আবল-তাবল কথা বলেন। একজন বলেছেন গুলি কর আমাকে। কে কাকে গুলি মারবে?’

তিনি বলেন, ‘তারা সব ক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি-জামায়াত জোটের সঙ্গে এক হয়ে পরিস্থিতি ঘোলাটে করার অনেক চেষ্টা করেছে। এ ধরনের ব্যক্তিরা জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে জাতিকে ধ্বংস করার লক্ষ্যে, গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার লক্ষ্যে বার বার চেষ্টা করেছে।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে অনুরোধ করবো- কঠোরভাবে এ সমস্ত অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে। তারা এখন চিহ্নিত হয়ে গেছে, উন্মোচিত হয়ে গেছে। আন্দোলনে তারা একটি লাশ চেয়েছিলো। তারা লাশের ওপর ভর করে অসাংবিধানিক ভাবে ক্ষমতায় আসতে চেয়েছে।’

নাসিম বলেন, ‘সাধারণ শিক্ষার্থীদের আন্দোলন আমাদের চোখ খুলে দিয়েছে। আমরা চাই নিরাপদ সড়ক আইন বাস্তবায়ন হোক। সড়কে নৈরাজ্য হয়েছে, তা আর হতে দেয়া যায় না। সড়কে নৈরাজ্য বন্ধে প্রশাসনকে কঠোর হতে হবে।’

জনগণের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘রাস্তায় লাইসেন্স ছাড়া কোনো গাড়ি চলবে না। আমাদেরও দায়বদ্ধতা রয়েছে। রাস্তা পারাপারে ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহার করবেন।’লাইসেন্স ছাড়া কোনো মন্ত্রী-এমপি’র গাড়িও যাতে ছাড় না পায়- সেদিকে নজর দিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীরও দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।



সাম্প্রতিক খবর

প্রত্যেকটা উৎসবে সবাই ভাই বোনের মত কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আমরা উদযাপন করে যাই: প্রধানমন্ত্রী

photo ঢাকা সংবাদদাতা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জমি সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানে হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দকে আশ্বস্থ করে বলেছেন, সরকার ইতোমধ্যেই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তিনি বলেন, ‘এই ঢাকেশ্বরী মন্দিরে জমি নিয়ে একটা সমস্যা ছিল। ইতোমধ্যেই সেই সমস্যাটা আমরা সমাধান করে ফেলেছি। বাকী কাজটা আপনাদের ওপরই নির্ভরশীল।’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বিকেলে

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment