আজ : ০৩:১৬, জুলাই ১৩ , ২০২০, ২৮ আষাঢ়, ১৪২৭
শিরোনাম :

মিশরের নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডঃ মুরসী স্মরণে ভয়েস ফর জাস্টিস ইউকের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত


আপডেট:০৯:২৩, জুন ২৩ , ২০১৯
photo

স্পেশাল রিপোর্টারঃ মিশরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো গনতান্ত্রিক ভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডঃ মুরসীকে সুপরিকল্পিত ভাবে হত্যার প্রতিবাদে ভয়েস ফর জাস্টিস ইউকের পক্ষ থেকে ২৩ জুন শনিবার এক প্রতিবাদ সভা ও দোয়া মাহফিল পুর্ব লন্ডনের একটি কমিউনিটি হলে অনুষ্ঠিত হয়।

কমিউনিটি সংগঠক মাওলানা রফিক আহমদ রফিকের সভাপতিত্বে ও বিশিষ্ঠ সাংবাদিক কে এম আবু তাহের চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় মুসলিম বিশ্বের গৌরব বিজ্ঞানি, ইঞ্জিনিয়ার,কুরআনে হাফেজ ডঃ শহীদ মোহাম্মদ মুরসীর জীবন, ইতিহাস ও বর্তমান সরকারের নির্যাতনের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক নূরুল ইসলাম খান জামাল, সাংবাদিক আফসার উদ্দিন, সাংবাদিক বদরুজ্জামান বাবুল,সাংর্বদিক ও কলামিস্ট শিহাবুজ্জামান কামাল,কমিউনিটি একটিভিস্ট মোঃ শফিক খান, হাফেজ এমদাদ রহমান. হাজী ফারুক মিয়া, কবি শাহ এনায়েত করিম, হাজী কলা মিযা,হাজী আব্রুস আলী প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, মিশরের ইতিহাসে গনতান্ত্রিক পদ্ধতিতি নির্বাচিত প্রথম প্রেসিডেন্টকে মার্কিন সাম্রজ্যবাদের দালাল বর্তমান সিসি ক্ষমতাচ্যুত করে। দীর্ঘ ৬ বছর তাকে কারাগারের অন্ধকার প্রকোস্টে কংক্রিটের উপর শুইতে বাধা করে ও পচা, বাসি খাবার সরবরাহ করে। বার বার আবেদন জানানোর পরোও এককপি কুরআন শরীফ পড়তে দেয়নি। একের পর এক মিথ্যে মামলা দিয়ে তাকে জেলে আটকে রাখে এবং সুপরিকল্পিত ভাবে তাকে হত্যা করে।

বক্তারা বিশ্বের গনতন্ত্রের মুর্তপ্রতিক হাফেজ ডঃ মুরসীকে এভাবে হত্যার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে সুষ্টু তদন্তের দাবী জানান।

বক্তারা চীনে উইঘুর মুসলমানদের উপর বর্বর অত্যাচারের নিন্দা জানিয়ে বিশ্বের যেখানে মানবতা ভুলুন্টিত হচ্ছে তার বিরুদ্ধে সবাইকে সোচ্চার হওয়ার আহবান জানান।



সাম্প্রতিক খবর

প্রতিদান চেয়না

photo প্রতিদান চেয়না শিহাবুজ্জামান কামাল: শিশু ভুমিষ্ট হওয়ার পর অজানা আতংকে চিৎকার করে কাঁদে। তখন একমাত্র গর্ভধারিণী মা অভয় দিয়ে তাকে বূকে জড়িয়ে ধরেন। সন্তানকে পরম আদর যতনে মানুষ করেন। কিন্তু কি জানো! একদিন সেই সন্তানই তাকে ভুলে যায়। আর এই পৃথিবীতে ভুলে যাওয়া মানুষের সংখ্যাই বেশি। জীবনে চলার পথে হাজার মানুষের সাথে পরিচয় হবে।প্রয়োজনে তারা পাশে আসবে। তোমাকে ভালোবাসবে। কিন্তু

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment