আজ : ১২:২৪, অক্টোবর ১৬ , ২০১৮, ৩০ আশ্বিন, ১৪২৫
শিরোনাম :

নাখালপাড়ায় ‘জঙ্গি আস্তানায়’ অভিযানে নিহত ৩


আপডেট:০৪:৪৩, জানুয়ারি ১২ , ২০১৮
photo

ঢাকা প্রতিনিধি: রাজধানীর তেজগাঁওয়ের পশ্চিম নাখালপাড়ায় জঙ্গি আস্তানা ‘রুবী ভিলা’য় ৩ জঙ্গির মরদেহ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ।

শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে ১০টার দিকে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তিনি এ কথা জানান। বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারি) দিনগত মধ্যরাতের পর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও এমপি হোস্টেলের ঠিক পেছনে ১৩/১ রুবী ভিলা নামের ওই ছয় তলা বাড়িটিতে ‘জঙ্গি আস্তানা’র সন্ধান পেয়ে অভিযানে নামেন র‌্যাব সদস্যরা।

ঢাকার তেজকুনি ও নাখালপাড়ার সীমান্তের সন্দেহজনক জঙ্গি আস্তানা ‘রুবি ভিলা’ নামের বাড়িটি জনবসতিপূর্ণ এলাকায়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও ন্যাম ভবন থেকে একেবারে কাছেই বাড়িটি। এখানেই আস্তানা গেড়েছিল ‘জঙ্গিরা’।

ধূসর ও হলুদ রং মেশানো ছয়তলা বাড়িটি দেখতে সাদামাটা। স্থানীয় লোকজন বলছে, বাড়িটি ১৯৯০ সালের দিকে তৈরি। সাব্বির নামের এক ব্যক্তি বাড়ির মালিক। চারপাশে বড় বারান্দা রয়েছে। বাড়ির ছাদে মোবাইল অপারেটর কোম্পানির একাধিক টাওয়ার আছে। এই বাসার পঞ্চম তলাতেই মিলেছে ‘জঙ্গি আস্তানা’।

বাসার অবস্থান প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ১০০ গজ দূরে। পশ্চিমদিকে বায়তুল আতীক জামে মসজিদ কমপ্লেক্স। এটি ছাপরা মসজিদ নামে পরিচিত। এখান থেকে মাত্র ৫০ গজ দূরে বাড়ির অবস্থান। বাড়ির উত্তরদিকে ন্যাম ভবন। ন্যাম ভবন থেকে দক্ষিণ পাশে তিনটি বাড়ির পরই ‘রুবি ভিলা’।

অভিযানে আতঙ্কিত এই এলাকার বাসিন্দা নূরুজ্জামান মন্টু। ‘রুবি ভিলার’ কয়েকটি বাসার পরই তিনি থাকেন। জানালেন, রাতের দিকে গোলাগুলির শব্দ পান। একপর্যায়ে মাইকিং করা হয়।

বাড়ির পাশে ঘুরছেন কামরান হোসেন। গাজীপুর থেকে এসেছেন তিনি। রুবি ভিলার ষষ্ঠ তলায় তাঁর ছেলে পারভেজ হোসেন থাকেন। ষষ্ঠ তলায় মেস করে বেশ কয়েকজন ছেলে থাকেন। ভোররাত ৪টার দিকে পারভেজ ফোন করেন বাবাকে। বলেন, ‘গোলাগুলি হচ্ছে। কিছু বোঝা যাচ্ছে না। আমি কী করব?’
পারভেজ হোসেন ঢাকার পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ছাত্র। বাসার ষষ্ঠ তলায় কয়েকজন যুবককে ঘোরাফেরা করতে দেখা যায়। তাঁদের মধ্যেই হয়তো পারভেজ রয়েছেন। নিচে ঘুরছেন উদ্বিগ্ন বাবা।



সাম্প্রতিক খবর

প্রত্যেকটা উৎসবে সবাই ভাই বোনের মত কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আমরা উদযাপন করে যাই: প্রধানমন্ত্রী

photo ঢাকা সংবাদদাতা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের জমি সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানে হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দকে আশ্বস্থ করে বলেছেন, সরকার ইতোমধ্যেই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তিনি বলেন, ‘এই ঢাকেশ্বরী মন্দিরে জমি নিয়ে একটা সমস্যা ছিল। ইতোমধ্যেই সেই সমস্যাটা আমরা সমাধান করে ফেলেছি। বাকী কাজটা আপনাদের ওপরই নির্ভরশীল।’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বিকেলে

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment