আজ : ০২:৩১, জুলাই ১৩ , ২০২০, ২৮ আষাঢ়, ১৪২৭
শিরোনাম :

কেবিনেট মেম্বার আমিনা আলীর সাথে কেয়ারার্স এসোসিয়েশনেের নেতৃবৃন্দের সভা


আপডেট:০৭:৫৯, জুলাই ১৯ , ২০১৯
photo
লন্ডনবিডিনিউজ২৪ঃ একজন কেয়ারারের সপ্তাহে ১২ ঘন্টা কন্ট্রাক্টের আওতায় প্রতিদিন সকালে ১ ঘন্টা, দুপুরে ৩০ মিনিট আবার বিকেলে ৩০ মিনিট কাজ দিয়ে সারাদিন আটকে রেখে কন্ট্রাক্টের অপব্যবহার না করে এজেন্সি গুলোকে কাজে শিফটিং ব্যবস্থা চালু করে এক শিফটের মধ্যে কন্ট্রাক্টের আওয়ার নিয়ে আনা ও অন্যান্য দাবী নিয়ে গত ১৫ জুলাই সোমবার বিকেল ৬ টায় টাওয়ার হ্যামলেট কাউন্সিলের এডাল্টস, হেল্থ এন্ড ওয়েলবিইং কেবিনেট মেম্বার কাউন্সিলার আমিনা আলীর সাথে টাওয়ার হ্যামলেট কেয়ারার্স এসোসিয়েশনের এক বৈঠক মালব্যারি প্লেসে অনুষ্ঠিত হয়। এসভায় উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলার সিরাজুল ইসলাম, ডেপুটি স্পীকার কাউন্সিলার মোহাম্মদ আহবাব হোসেন, সাবেক স্পীকার কাউন্সিলার আয়াস মিয়া। টাওয়ার হ্যামলেট কেয়ারার্স এসোসিয়েশনের প্রতিনিধি দলে ছিলেন প্রেসিডেন্ট আবুল হোসেন, জেনারেল সেক্রেটারী কামাল হোসেন, উপদেষ্টা এম আব্বাছ উজ জামান, ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বদরুল আহমদ, মোহাম্মদ বদরুজ্জামান, ভাইস প্রেসিডেন্ট নাজমা সুলতানা, মিডিয়া সেক্রেটারী মোহাম্মদ ফয়েজ আহমদ চৌধুরী, সালমা পারভীন, শহিদুল্লাহ, হুসাই বাহ ও প্রিন্সেস এক্সাবী প্রমুখ। কেয়ারার্স এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ লগইন ও লগ আউট সমস্যার সমাধান, বিভিন্ন এজেন্সি কর্তৃক লগইন লগ আউট সিস্টেমের ত্রুটি দুর না করে লগশিট বিলোপ করে পেমেন্টে গড়মিল বন্ধ করা এবং প্রতিমাসের সেলারি থেকে এডমিন ফি নেয়া বন্ধ করা সহ অন্যান্য দাবী সমুহ কেবিনেট মেম্বার কাউন্সিলার আমিনা আলীর কাছে তুলে ধরেন। কাউন্সিলার আমিনা আলী অত্যন্ত মনোযোগ সহকারে নেতৃবৃন্দ উত্থাপিত দাবী সমুহ শুনেন এবং বিষয় গুলি বিশদভাবে খতিয়ে দেখার আশ্বাস প্রদান করেন।


সাম্প্রতিক খবর

প্রতিদান চেয়না

photo প্রতিদান চেয়না শিহাবুজ্জামান কামাল: শিশু ভুমিষ্ট হওয়ার পর অজানা আতংকে চিৎকার করে কাঁদে। তখন একমাত্র গর্ভধারিণী মা অভয় দিয়ে তাকে বূকে জড়িয়ে ধরেন। সন্তানকে পরম আদর যতনে মানুষ করেন। কিন্তু কি জানো! একদিন সেই সন্তানই তাকে ভুলে যায়। আর এই পৃথিবীতে ভুলে যাওয়া মানুষের সংখ্যাই বেশি। জীবনে চলার পথে হাজার মানুষের সাথে পরিচয় হবে।প্রয়োজনে তারা পাশে আসবে। তোমাকে ভালোবাসবে। কিন্তু

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment