আজ : ০৪:০৪, ডিসেম্বর ১২ , ২০১৮, ২৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫
শিরোনাম :

টাওয়ার হামলেটস কাউন্সিল নির্বাচনে লেবার পার্টির প্রার্থী মনোনীত


আপডেট:১০:৩৪, নভেম্বর ১৪ , ২০১৭
photo

লন্ডনবিডিনিউজ.২৪.কমঃ: ব্রিটেনে ২০১৮ সালের মে মাসে কাউন্সিল নির্বাচনে বাংলাদেশী অধ্যুষিত টাওয়ার হামলেটস কাউন্সিলে কাউন্সিলার পদে লেবার পার্টি থেকে এপর্যন্ত ১৪জন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত প্রার্থী মনোনিত হয়েছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানাগেছে। আরো বহু বাংলাদেশী মনোনিত হবার সম্ভবনা রয়েছে জানিয়েছেন দলের নেতা কর্মীরা। এ বছর শট লিস্টেট প্রার্থীদের মধ্য থেকে ওয়ার্ডের লেবার পার্টির সমর্থকদের ভোটে মনোনিত হচ্ছে প্রার্থীরা। ফলে কাউন্সিলার প্রার্থীরা দিন রাত কাজ করে যাচ্ছেন কাউন্সিল নির্বাচনের পূর্বে দলের মনোনয়ন যুদ্ধে জয়ী হতে।

গত ৪ নভেম্বর শনিবার প্রথম পর্বের নির্বাচনে ৫ টি ওয়ার্ডে ১২ প্রার্থী নির্বাচিত হন, এর মধ্যে বাঙ্গালী প্রার্থী নির্বাচিত হন ৫ জন। পূর্ব লন্ডনের সেন্ট হিলডাস কমিউনিটি সেন্টারে দিনব্যাপী দলীয় এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত নির্বাচনে গোপন ব্যালটে যারা নির্বাচিত হয়েছেন, তারা হলেন যথাক্রমে বো ইস্ট ওয়ার্ড থেকে মার্ক ফ্রান্সিস, আমিনা আলী, রেইচেল ব্লেইক, ব্রোমলি সাউথ ওয়ার্ড থেকে হেলাল উদ্দিন ও ড্যানি হেসেল। বো ওয়েস্ট ওয়ার্ড থেকে আসমা বেগম ও ভ্যাল হোয়াইটহেড । ইউভার্স ওয়ার্ড থেকে আব্দুল মুকিত চুন্নু এমবিই ও জন পিয়ার্স। ব্লাক ওয়াল ও কিউবিট টাউন ওয়ার্ড থেকে ক্যানদিডা রেনল্ড, এহতেশাম আহমদ ও মোহাম্মদ ইকবাল।

এদিকে গত ১১ নভেম্বর শনিবার একই হলে দ্বিতীয় পর্বের নির্বাচনে আরো ৫ টি ওয়ার্ডে ১২ প্রার্থী নির্বাচিত হন, এর মধ্যে বাঙ্গালী প্রার্থী নির্বাচিত হন ৯ জন।

উক্ত নির্বাচনে গোপন ব্যালটে যারা নির্বাচিত হয়েছেন, তারা হলেন যথাক্রমে স্টেপনি গ্রীন ওয়ার্ডে কাউন্সিলার সাবিনা আক্তার ও সাবেক কাউন্সিলার মতিনুজ্জামান, লেন্সবারী ওয়ার্ডে হারুন মিয়া, কাহার চৌধুরী ও রেবেকা বেকেট, বেথনাল গ্রীন ওয়ার্ডে মোঃ আহবাব হোসেন, সিরাজুল ইসলাম ও ইভ ম্যাকালান, আইল্যান্ড গার্ডেনস ওয়ার্ডে মাফিদা বাস্তিন ও শুভ হোসেন এবং ব্রোমলি নর্থ ওয়ার্ডে কাউন্সিলার খালিছ উদ্দিন ও সাবেক কাউন্সিলার জেনেট রহমান।

S: bdesh24



সাম্প্রতিক খবর

সুষ্ঠু ভোট আদায় করব, শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকব: ড. কামাল

photo সিলেট প্রতিনিধি: জাতীয় ঐকফ্রন্টের শীর্ষনেতা গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, স্বাধীনতার লক্ষ্যই সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজন। কিন্তু প্রতিদিনই আমাদের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। এটি সুষ্ঠু নির্বাচনের আলামত নয়। আর সুষ্ঠু নির্বাচন না হলে জনগণের মালিকানা থাকে না। আর জনগণের মালিকানা না থাকলে স্বাধীনতা থাকে না। তিনি বলেন, আমরা শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত মাঠে থাকব। সুষ্ঠু নির্বাচন

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment